হ্নীলায় অ*প*হৃ*ত এসএসসি পরীক্ষার্থী জীবিত না মৃত দেড় মাস ধরে হদিস মিলছেনা ; উদ্বিগ্ন পরিবার

: হুমায়ুন রশিদ
প্রকাশ: ১১ মাস আগে

বিশেষ প্রতিবেদক : হ্নীলায় স্কুলে কোচিং করতে যাওয়ার পথে দূবৃর্ত্ত দলের হাতে অপহৃত এসএসসি পরীক্ষার্থী জীবিত না মৃত কোন খবরই মিলছেনা পরিবারের নিকট। লুট করে নেওয়া মোটাংকের টাকা ও স্বর্ণের লোভে অপহৃত মেয়েকে খুন করেছে বলে ধারণা করে চরম উদ্বেগের মধ্যে রয়েছে মা-বাবা। এই মামলায় আটকদের রিমান্ডে নিয়ে এবং পলাতক আসামীদের দ্রুত গ্রেফতার করলে জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে অপহৃত এসএসসি পরীক্ষার্থীর অবস্থান নিশ্চিত করার জন্য আইন প্রয়োগকারী সংস্থার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন পরিবার।

২০ মে দুপুরে অপহৃত মেয়ের পিতা আবুল কালাম আলম জানান,গত ৩রা এপ্রিল সকালে আমার ২য় মেয়ে মিতালী ফারজানা মিসু হ্নীলা উচ্চ বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগের ক শাখার ছাত্রী এবং এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। কোচিং করতে যাওয়ার সময় স্থানীয় পুরান রোহিঙ্গা বশির আহমদের পুত্র খাইরুল আমিনের নেতৃত্বে একটি গ্রুপ জোরপূর্বক অপহরণ করে বশে নিয়ে মোটাংকের টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। এই মেধাবী ছাত্রীর এসএসসি পরীক্ষায় অংশ-গ্রহণ নিশ্চিত করার জন্য যথাযথ পদক্ষেপ থাকা সত্তে¡ বিশেষ মহলের কারণে অপহরণকারীদের বেপরোয়া তৎপরতায় অপহৃত মেয়েকে ফিরে পাওয়া যাচ্ছেনা। ফলে আমার মেয়েকে মাধ্যমিক সার্টিফিকেটধারী করার স্বপ্নটি চোখের জলে ভেসে যায়। এখন দেড় মাস পার হতে চলল অথচ আমার মেয়েটি কি জীবিত না মৃত তারই কোন খবর পাচ্ছিনা। মেয়ে অপহরণের পর থেকে আমরা চরম উদ্বেগের মধ্যে রয়েছি। আইন-শৃংখলা বাহিনীর আন্তরিকতার কারণে এই মামলার অনেক আসামী আটক হয়ে কারাগারে রয়েছে। এই জন্য তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমার অপহৃত মেয়ের সার্বিক অবস্থা নিশ্চিত করার জন্য প্রযুক্তি নির্ভর আইন-শৃংখলা বাহিনীর আরো সহায়তা কামনা করছি। ###