ওসি প্রদীপের সম্পদের খোঁজে ৭ দেশে চিঠি দিল দুদক

: হুমায়ুন রশিদ
প্রকাশ: ১১ মাস আগে

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা মেজর সিনহা মো. রাশেদ হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত কক্সবাজারের টেকনাফ থানার সাবেক ওসি (বরখাস্ত) প্রদীপ কুমার দাশের সম্পদের খোঁজে সাতটি দেশে চিঠি পাঠিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভারত, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, সংযুক্ত আরব আমিরাতে এ চিঠি পাঠানো হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে দুদক চট্টগ্রামের সহকারী পরিচালক নুরুল ইসলাম দেশ রূপান্তরকে বলেন, দেশের বাইরে ওসি প্রদীপের কোনো সম্পদ আছে কি না, তা নিশ্চিত করতে সাতটি দেশে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

এই কর্মকর্তা জানান, ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে ওসি প্রদীপ ও তার স্ত্রী চুমকিকে সম্পদ বিবরণী দাখিলের নোটিশ দেয় দুদক। কিন্তু জমা দেওয়া সম্পদ বিবরণীতে মিথ্যা তথ্য দেন চুমকি। এতে প্রদীপের সম্পদের হিসাব মিলেনি। তাই দেশের বাইরে তিনি (প্রদীপ) সম্পদ গড়েছেন কি না, তা জানতে গত এপ্রিলে বাংলাদেশ ব্যাংকের ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (বিএফআইইউ) মাধ্যমে সাত দেশকে চিঠি দেয় দুদক।

প্রসঙ্গত, ওসি প্রদীপ ও তার স্ত্রী চুমকি বর্তমানে কারাগারে বন্দি আছেন।

সূত্র জানায়, ২০২২ সালের ২৭ জুলাই দুদকের দায়ের করা মামলায় চট্টগ্রাম বিভাগীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক প্রদীপ কুমার দাশকে ২০ বছর ও তার স্ত্রী চুমকিকে ২১ বছর কারাদণ্ড দেন। একই সঙ্গে প্রদীপের ঘুষের টাকায় চুমকির নামে নেওয়া কোটি টাকার বাড়ি, গাড়ি ও ফ্ল্যাট রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত ঘোষণা করেন আদালত।

২০২০ সালের ৩১ জুলাই কক্সবাজার জেলার টেকনাফের বাহারছড়া তল্লাশি চৌকিতে পুলিশের গুলিতে নিহত হন অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান। এ হত্যা মামলায় প্রদীপ ও পরিদর্শক লিয়াকতের মৃত্যুদণ্ড ও ছয়জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়েছে। ২০২২ সালের ৩১ জানুয়ারি এ রায় দিয়েছেন কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালত।

সুত্র : দেশ রূপান্তর।