ঢাকা রেল স্টেশ‌নে ইয়াবা নিয়ে টেকনাফ পৌর এলাকার সম্ভাব্য কাউন্সিলর প্রার্থী সহোদর আটক

yaba.jpg

বিশেষ প্রতিবেদক : বৃহস্প‌তিবার দুপুর সা‌ড়ে ১২টার দি‌কে চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী ‘সুবর্ণ এক্সপ্রেস’ ট্রেন বিমানবন্দর রেলওয়ে স্টেশনের চার নম্বর লাই‌নে দাঁড়ায়। ট্রেন‌টি থে‌কে রফিক আলম (৩০), মনির হোসেন ওর‌ফে বাতাইন্না (২৫) না‌মে দুই যাত্রী ট্রলি ব্যাগসহ না‌মেন। তারা দুই নম্বর প্লাটফর্মে ঘোরা‌ফেরা কর‌লে তা‌দের স‌ন্দেহবশত আটক ক‌রে রেল পু‌লিশ। জিজ্ঞাসাবাদে তারা ইয়াবা ট্যাবলেট বহ‌নের কথা স্বীকার ক‌রে। প‌রে তা‌দের ট্রলিব্যাগ তল্লা‌শি ক‌রে পলিথিনে মোড়া‌নো ৩টি প্যাকেটের ভিতর ১৩৯টি জিপার পাওয়া যায়; যার ভেতর থে‌কে ২৬ হাজার ৬৩৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার হ‌য়ে‌ছে ব‌লে জানা‌নো হ‌য়ে‌ছে রে‌লের সংবাদ বিজ্ঞ‌প্তি‌তে। উদ্ধার হওয়া ইয়াবার আনুমা‌নিক মূল্য ৭৯ লাখ ৯০ হাজার ৫০০ টাকা।

আটক আলম ও বাতাইন্না আপন ভাই। তা‌দের বা‌ড়ি কক্সবাজারের টেকনাফ উপ‌জেলার ডেইলপাড় গ্রা‌মে। তা‌দের বিরু‌দ্ধে মামলা দা‌য়ে‌রের প্রস্তু‌তি চল‌ছে।
এই মনির আলম বাদশা ওরফে বাতাইন্যা ইয়াবা চোরাচালান করে কোটিপতি বনে যায়। এখন প্রশাসনের সাথে সখ্যতা গড়ে প্রাণ রক্ষার জন্য আসন্ন টেকনাফ পৌর সভার কাউন্সিলর পদে নির্বাচনের প্রস্তুতি নেয়। এমন কি গণসংযোগ পর্যন্ত চালিয়ে যায়। পৌর নির্বাচন পিছিয়ে যাওয়ায় শেষ পর্যন্ত পুরান কারবারে জড়িয়ে পড়ে। অবশেষে আইন-শৃংখলা বাহিনীর হাতে আটকের পর তার প্রকৃত মুখোশ উম্মোচিত হল।