মেজর সিনহা হত্যা মামলা পঞ্চম দফায় ১৫ জনসহ ৩৫ জনের স্বাক্ষ্যগ্রহন সম্পন্ন

Snapshot_9.png

দুই নম্বর স্বাক্ষী সিফাতের পুন: স্বাক্ষ্য গ্রহনের জন্য আসামীপক্ষের আবেদন

কক্সবাজার প্রতিনিধি :

সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলার ৫ম দফায় তিন দিন সাক্ষ্য গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ৩টার দিকে আদালত মামলার কার্যক্রম শেষ হয়। আজ শেষ দিনে ৪ জন স্বাক্ষী আদালতে স্বাক্ষ্য প্রদান করেছেন। আগামী ২৫,২৬ ও ২৭ অক্টোবর এই মামলার পরবর্তী স্বাক্ষ্য গ্রহনের তারিখ নির্ধারন করে আদালত।

সকাল ১০ টায় ৩২ তম সাক্ষী লে. কর্ণেল মো. ইমরান হাসানের জবানবন্দী গ্রহনের মধ্য আদালতের কার্যক্রম শুরু হয়। এরপর স্বাক্ষ্য প্রদান করেন এএসআই নজরুল ইসলাম, এসআই সোহেল সিকদার ও কনস্টেবল শুভ পাল।

কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর পিপি অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম জানিয়েছেন আজ মঙ্গলবার সিনহা হত্যা মামলায় নয় জন স্বাক্ষীকে আদালতে উপস্থাপন করা হয়েছিল। এর মধ্যে ৪ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য জেরা সম্পন্ন হয়। এ নিয়ে এই মামলায় এপর্যন্ত ৩৫ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য জেরা সম্পন্ন হলো। ৫ম দফায় পনেরো জন স্বাক্ষী স্বাক্ষ্য প্রদান করেছেন।

তিনি আরো জানান, মামলার দুই নম্বর স্বাক্ষী শাহেদুল ইসলাম সিফাতের পুনরায় স্বাক্ষ্য-জেরার জন্য আবেদন করেছেন আসামী প্রদীপের পক্ষের আইনজীবি এড রানা দাশ গুপ্ত। তবে পরবর্তীতে শুনানীর মাধ্যমে এই পুন শুনানীর সিদ্ধানব্ত নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন আদালত।

এর আগে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে বরখাস্ত ওসি প্রদীপসহ কক্সবাজার জেলা কারাগার থেকে মামলার ১৫ আসামিকে প্রিজন ভ্যানে করে কড়া পুলিশ পাহারায় আদালতে আনা হয়।

গত বছর ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর পুলিশ চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান।