কলকাতা হাইকোর্টের রায় ; সম্মতিতে যৌনমিলন ধর্ষণ নয়

kolkata-high-court.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : কলকাতা হাইকোর্টের এক যুগান্তকারী রায়ে ধর্ষণে অভিযুক্ত এক ২১ বছরের যুবক বেকসুর খালাস পেলেন। হাইকোর্টের বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্য তার ল্যান্ডমার্ক রায়ে বলেছেন, দুজনের সম্মতিতে শারীরিক মিলন হলে তা কখনোই ধর্ষণের পর্যায়ভুক্ত হতে পারে না। এক্ষেত্রে তরুণীর বয়স ১৮ বছরের নিচে হওয়ায় পকসো ধারায় মামলা আনা হয়েছিল। বিচারপতি বলেন, তরুণী ও তার মায়ের সাক্ষ্য থেকে জানা যাচ্ছে যে, উল্লেখিত তরুণ-তরুণীর মধ্যে একটি রোমান্টিক সম্পর্ক ছিল এবং দুজনের সম্মতিতেই তারা শারীরিক ভাবে লিপ্ত হয়েছে। ঘটনার সময় তরুণীর বয়স ১৭ বছর ছিল জেনেও বিচারপতি বলেন, পুরুষের শারীরিক গঠনের জন্য এক্ষেত্রে ধর্ষণ প্রমান হয় না। তরুণী ১৮ বছরের কম বয়স্ক হতে পারে কিন্তু সহবাসে তার আপত্তি ছিল না। এগ্রিড সেক্স কখনও ধর্ষণ হতে পারে না। বিচারপতির এই রায়কে ঐতিহাসিক দাবি করে পুরুষদের স্বাধিকার রক্ষার কাজে নিযুক্ত এক এনজিও সংস্থার প্রধান নন্দিনী ভট্টাচার্য বলেন, এই রায় পুরুষদের হাত শক্ত করবে।
দৈহিক মিলনের পর স্বার্থসিদ্ধি না হলেই যে সব মেয়েরা পুরুষদের ওপর ধর্ষণ-এর অভিযোগ আনে তারা এবার একটু সচেতন হবে।