ইকার্দির গোলে অলম্পিক লায়নকে হারালো পিএসজি

psg.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : রোববার রাতে প্যারিস সেন্ত জার্মেইর (পিএসজি) দারুণ পরীক্ষা নিয়েছে অলিম্পিক লায়ন। প্রথমে পিএসজির বিপক্ষে লিডও নেয় তারা। কিন্তু পেনাল্টি থেকে নেইমারের করা গোলের পর অন্তিম মুহূর্তে মাউরো ইকার্দি গোল করে জয় উপহার দেন পিএসজিকে। এর মধ্য দিয়ে শতভাগ ম্যাচে জয় তুলে নিলো নেইমার-মেসিরা। ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানে এটা ছিল ষষ্ঠ ম্যাচে পিএসজির ষষ্ঠ জয়। ১৮ পয়েন্ট নিয়ে যথারীতি পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে আছে তারা।

নেইমার-মেসি-এমবাপেরা ঘরের মাঠ পার্ক দেস প্রিন্সে প্রথমার্ধে একাধিক সুযোগ তৈরি করেও জালের নাগাল পায়নি। বিরতির পর ৫৪ মিনিটে গোল হজম করে তারা। এ সময় বাম দিক থেকে বক্সের মধ্যে লুকাস পাকুয়েতাকে বল বাড়িয়ে দেন তোকো একাম্বি। সামনে ছিলেন কেবল পিএসজির গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি দনারোমা। তাকে পরাস্ত করে বল জালে জড়ান পাকুয়েতা।

তবে বেশিক্ষণ তারা এগিয়ে থাকতে পারেনি। ৬৬ মিনিটের মাথায় পেনাল্টি পায় পিএসজি। এ সময় বক্সের মধ্যে নেইমারকে ফাউল করেন লায়নের মালো গুস্তো। রেফারি পেনাল্টির বাঁশি বাজান। পেনাল্টি থেকে নেইমার গোল করে সমতা ফেরান। মেসির সঙ্গে গোল উদযাপন করেন।

এ নিয়ে পিএসজির হয়ে তৃতীয় ম্যাচে মাঠে নামেন লিওনেল মেসি। কিন্তু গোলের দেখা পাননি। ৭৬ মিনিটে তাকে উঠিয়ে আশরাফ হামিকিকে মাঠে নামান কোচ মাউরোসিও পচেত্তিনো।

১-১ গোলের সমতা নিয়ে শেষ হয় নির্ধারিত ৯০ মিনিটের খেলা। ম্যাচ যখন ড্রয়ের পথে তখন পার্ক দেস প্রিন্সে উপস্থিত দর্শকদের উল্লাসে ভাসান পিএসজির ইকার্দি। এ সময় (৯০+৩) বামদিক থেকে এমবাপে ক্রসে বল বাড়িয়ে দেন ইকার্দিকে। আর আনমার্ক ইকার্দি হেডে লায়নের গোলরক্ষক অ্যান্থনি লোপেজের নাগালের বাইরে দিয়ে বল জালে পাঠান। তাতে ২-১ ব্যবধানের জয় নিশ্চিত হয় পিএসজির।