আজ প্রাবন্ধিক ও গল্প লেখক এস ওয়াজেদ আলীর মৃত্যু দিবস

wazed-ali.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : ১৯৫১ সালের এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন প্রাবন্ধিক ও গল্প লেখক এস ওয়াজেদ আলী। তার জন্ম ১৮৯০ সালের ৪ সেপ্টেম্বর পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলায়। বাবা শেখ বেলায়েত আলী ছিলেন ব্যবসায়ী। ওয়াজেদ আলী ১৯০৬ সালে স্বর্ণপদকসহ এন্ট্রান্স, ১৯০৮ সালে আলীগড় কলেজ থেকে আইএ এবং ১৯১০ সালে এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএ ডিগ্রি লাভ করেন। এরপর তিনি লন্ডন যান এবং কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বার অ্যাট ল’ সম্পন্ন করেন। ১৯১৫ সালে কলকাতা হাইকোর্টে আইন ব্যবসা দিয়ে কর্মজীবন শুরু। ১৯২৩ সালে তিনি ম্যাজিস্ট্রেট নিযুক্ত হন। ওয়াজেদ আলী ১৯১৯ সালে একটি ইংরেজি সাময়িকী ও ১৯৩২ সালে গুলি¯ঁ—া নামে একটি বাংলা মাসিক সাহিত্য পত্রিকা সম্পাদনা ও প্রকাশ করেন। উদার, গণতান্ত্রিক, প্রগতিশীল এস ওয়াজেদ আলী সাহিত্যের পাশাপাশি রাজনীতিতেও সক্রিয় ছিলেন। ১৯৩৫ সালে তিনি সিরাজগঞ্জে অনুষ্ঠিত ‘নিখিল বঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সম্মিলনী’তে সভাপতি হিসেবে যোগ দেন। পরাধীন ভারতবর্ষে বসে তিনি স্বপ্ন দেখতেন বাঙালি জাতীয়তাবাদ এবং একটি ভাষাভিত্তিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করার। তার ‘ভবিষ্যতের বাঙালি’ গ্রন্থেও এ স্বপ্ন ধরা পড়ে। তার প্রবন্ধ গ্রন্থের মধ্যে আরও আছে ‘জীবনের শিল্প’ (১৯৪১), ‘প্রাচ্য ও প্রতীচ্য’ (১৯৪৩), ‘আকবরের রাষ্ট্র সাধনা’ ইত্যাদি। তার একমাত্র উপন্যাস ‘গ্রানাডার শেষ বীর’। এ ছাড়া গুলদাস্তা, বাদশাহী গল্প, গল্পের মজলিস ইত্যাদি তার গল্পগ্রন্থ। ১৯৪৮ সালে লেখা ‘পশ্চিম ভারত’ তার ভ্রমণকাহিনী।