নাফ নদীতে মাছ শিকারের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে সেক্টর কমান্ডার’স ফোরাম সভাপতির আকূল আবেদন

ssssssssssss.jpg

ডেস্ক নিউজ : টেকনাফের নাফ নদীতে জেলেদের মাছ ধরা নিষিদ্ধ রয়েছে ৪ বছর যাবৎ। ফলে এখানকার জেলেরা মানবেতর দিনযাপন করছেন। মাছ ধরার নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবী জানিয়ে সরকারের সংশ্লিষ্টদের প্রতি উদাত্ত আহবান জানিয়েছেন সেক্টরস কমান্ডার্স ফোরাম মুক্তিযুদ্ধ ৭১ টেকনাফ উপজেলা শাখার সভাপতি সাইফুদ্দিন খালেদ। তিনি বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ আহবান জানান। যা নিম্নে হুবহু তুলে ধরা হলো।

টেকনাফ উপজেলার অন্তর্গত নাফ নদীতে হাজারো প্রকৃত মৎস্যজীবী যারা যুগ যুগ ধরে বংশ পরম্পরায় মাছ শিকার করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন, আজ চার বছরেরও অধিক সময় ধরে মৎস্য শিকার করতে না পারায় প্রকৃত জেলেরা পরিবার পরিজন নিয়ে অত্যন্ত মানবেতর জীবনযাপন করছেন। বিষয়টি অত্যন্ত বেদনাদায়ক ও দুঃখজনক।
চার বছরের অধিক নাফ নদীতে জেলেদের মাছ শিকার করতে না পারার প্রসঙ্গে টেকনাফের স্থানীয় সাবেক/বর্তমান সাংসদ এর ভূমিকা অত্যন্ত দুর্বল। তারা শুধু বক্তব্য ও বিবৃতি দিয়ে দায়িত্ব পালন শেষ করেছেন।

স্থানীয় হাজার হাজার জেলে সম্প্রদায় ও তাদের পরিবার এর জীবন-জীবিকার বিষয়ে সরকারের নিকট জোরালো তদবির এর মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা এই পর্যন্ত ব্যর্থ হয়েছেন। বিষয়টি টেকনাফ বাসী ও জেলে সম্প্রদায়ের জন্য সুখকর হয়নি। এই বিষয়ে বর্তমান সাংসদের আরো জোরালো ভূমিকা রাখার সূযোগ রয়েছে ।

টেকনাফের জেলেদের মানবিক দিক বিবেচনা করে নাফ নদীতে মাছ শিকারের অনুমতি প্রদানে, একটি সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও পরিকল্পনার বিষয়ে,সরকারের সংশ্লিষ্ট নীতি নির্ধারকদের নিকট সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি।

সাইফুদ্দিন খালেদ
সভাপতি
সেক্টর কমান্ডার’স ফোরাম মুক্তিযুদ্ধ ৭১
টেকনাফ উপজেলা শাখা।