এভারেস্টে করোনাভাইরাসের মারাত্মক প্রাদুর্ভাবের আশঙ্কা

everest.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : নেপালে এভারেস্টের বেজ ক্যাম্পে পর্তারোহীদের মধ্যে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হওয়ার উপসর্গ এবং পরীক্ষায় ‘পজিটিভ’ হওয়ার সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে।

এভারেস্ট বেজ ক্যাম্প কর্তৃপক্ষ ও পর্বতারোহীরা বিবিসি-কে একথা জানিয়েছেন। তাদের আশঙ্কা, সেখানে যে কোনও সময় করোনাভাইরাস সংক্রমণ মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে।

বেজ ক্যাম্পের কর্মকর্তারা জানান, এখন পর্যন্ত তারা কাঠমাণ্ডুর বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে ১৭ জন পর্বতারোহীর কোভিড-১৯ ‘পজিটিভ’ হওয়ার খবর নিশ্চিত হয়েছেন।

বেজ ক্যাম্প এবং তার উপরের কয়েকটি ক্যাম্প থেকে বেশ কয়েকজনকে চিকিৎসার জন্য রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কাঠমাণ্ডুর একটি বেসরকারি হাসপাতালের একজন কর্মী বিবিসি-কে বলেন, এভারেস্টের বেজ ক্যাম্প থেকে তাদের হাসপাতালে আসা কয়েকজন করোনাভাইরাস ‘পজিটিভ’ হয়েছেন।

তবে নেপাল সরকার থেকে এখনও এভারেস্টের বেজ ক্যাম্পে কেউ কোভিড-১৯ ‘পজিটিভ’ হওয়ার খবার পাননি বলে দাবি করা হচ্ছে।

এভারেস্টেও পৌঁছে গেছে করোনাভাইরাস

বিবিসির খবরে বলা হয়, বিষয়টি উদ্বেগজনক। হয়ত সরকারি কর্মকর্তারা আশঙ্কা করছেন, যদি সেখানকার প্রকৃত অবস্থা প্রকাশ পায় তবে এভেরেস্ট আরোহণ বন্ধ করার জন্য চাপ বাড়বে। যে কারণে তারা প্রকৃত অবস্থা আড়াল করতে চাইছেন।

নেপাল সরকারের রাজস্ব আয়ের একটি বড় উৎস এভারেস্ট আরোহণে আসা বিদেশি পর্বতারোহীরা। গত বছর করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে এভারেস্ট আরোহণ বন্ধ ছিল।

এবার তা খুলে দেওয়া হলেও বিদেশ থেকে আসা পর্বতারোহীদের জন্য নেপালে প্রবেশের পর বেজ ক্যাম্পে যাওয়ার আগে কোয়ারেন্টিনে থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। কিন্তু তারপরও সংক্রমণের সংখ্যা যেভাবে বাড়ছে তাতে এভারেস্টে করোনাভাইরাসের মারাত্মক প্রাদুর্ভাব দেখা দিতে পারে।

নেপালেও গত কয়েক সপ্তাহ ধরে কোভিড-১৯ সংক্রমণ দ্রুতগতিতে বাড়ছে। ভারতের প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে এখন নেপালেই সংক্রমণের হার সব থেকে বেশি।