উখিয়ায় ঘর পোড়া মামলা নেয়নি থানা পুলিশ ; উল্টো বাদিকে পুলিশের হুমকি!

agon.jpg

মুহাম্মদ হানিফ আজাদ : উখিয়ায় সন্ত্রাসীরা ঘরের বাহিরে দরজায় তালা দিয়ে ঘরে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বসত বাড়ীতে থাকা অবস্থায় নগদ দুই লাখ টাকা সহ প্রায় সাত লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে থানায় অভিযোগ করেছে। কিন্তু পুলিশ ঘটনা স্থল পরিদর্শন করার পরও অভিযোগটি থানায় মামলা হিসাবে বিবাদীদের নিকট থেকে মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে রেকর্ড হয়নি বলে তেলখোলা গ্রামের মোহাম্মদ ছৈয়দের ছেলে থানায় অভিযোগকারী নুর কামাল জানিয়েছেন। গেল ২৬ এপ্রিল পালংখালী ইউনিয়নের তেলখোলা গ্রামে এই ঘটনাটি ঘটেছে। শুক্রবার সকালে মামলার বাদী নুর কামাল থানায় দেওয়া অভিযোগটি মামলা হিসাবে রেকর্ড হয়েছে কিনা উখিয়া থানার ওসি আহমেদ সঞ্জুর মোরশেদ বাদীকে থানা থেকে বের হয়ে যাওয়ার কথা বলে। উখিয়া থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা যায় ২৬শে এপ্রিল দিবাগত রাতে পালংখালী ইউনিয়নের তেলখোলা গ্রামের নুরুল কবিরসহ এক দল সন্ত্রাসী একই এলাকার নুর কামালের বাড়িতে পিট্রোলের ডিব্বা হইতে ঘরের চর্তুর পাশের্^ পেট্রোল চিটাইয়া দিয়াশলাই দিয়ে ঘরে আগুন ধরিয়া দেয়। ঘর আগুন দাউ দাউ করে জ¦লতে থাকলে তার পরিবারের সদ্যরা দিক বেদিক ছুটাছুটি করিতে থাকে। খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন এসে তাদের উদ্ধার করে। আগুনে আসবাব পত্র প্রয়োজনীয় স্ট্যাম্প নগদ জমা ২ লক্ষ টাকাসহ ৭ লক্ষ টাকা ক্ষয়ক্ষতি হইয়াছে। পালংখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এম. গফুর উদ্দিন চৌধুরী ও ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার ঘটনা সত্যতা স্বীকার করেন।

উখিয়া থানার ওসি আহমদ সঞ্জুর মোরশেদ বলেন, এই ঘটনার ব্যাপারে তদন্ত চলছে।