বাংলাদেশ-ভারত স্থল সীমান্ত ১৪দিনের জন্য বন্ধ ঘোষণা

ggg.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : ভারতের সঙ্গে আগামীকাল সোমবার থেকে স্থলপথে ১৪ দিন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ভারতে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি বড় ধরনের অবনতি হওয়ায় এই পদক্ষেপ নিয়েছে বাংলাদেশ সরকার।

এর আগে থেকেই দেশটির সঙ্গে আকাশপথে চলাচল বন্ধ রয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন বলেন, ভারতে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই ১৪ দিন মানুষের যাতায়াত বন্ধ থাকলেও পণ্যবাহী যানবাহন চলবে।

ভারতে গতকাল শনিবার ২৪ ঘণ্টার হিসেবে করোনায় ৩ লাখ ৪৬ হাজার ৮৮৬ জনের সংক্রমণের তথ্য জানানো হয়। এই সময়ে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ২ হাজার ৬২৪ জন। ভারতে করোনা সংক্রমণের এ ভয়াবহ পরিস্থিতিতে সীমান্ত দিয়ে চলাচল বন্ধ ঘোষণা করল সরকার।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে ভারতে। রাজধানী দিল্লির হাসপাতালগুলোতে করোনায় আক্রান্তদের উপচে পড়া ভিড়। এই অবস্থায় দিল্লিতে লকডাউনের মেয়াদ আরও এক সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে। আজ রোববার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানান, রাজধানীতে আগামী ৩ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়ানো হয়েছে।

দেশটির হাসপাতালগুলোতে ভয়ানক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। রাজধানীর হাসপাতালগুলোতে চলছে অক্সিজেনের ব্যাপক সংকট। অক্সিজেনের চাপ কমে গিয়ে করোনা আক্রান্তদের মৃত্যু হচ্ছে প্রতিদিন। গত বৃহস্পতিবার স্যার গঙ্গারাম হাসপাতালে ২৫ জন রোগী মারা যান অক্সিজেনের চাপ কমার কারণে। পরদিন শুক্রবার একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হয় রোহিনীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে। সেখানে মারা যান ২০ জন। অক্সিজেনের অভাবে রোগীর মৃত্যু হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না মর্মেও স্বজনদের কাছ থেকে লিখিত নিচ্ছে বেশ কয়েকটি হাসপাতাল।