উখিয়া মনখালীর ছোট্ট শিশু মুবিন বাঁচতে চায়, হার্ট বাল্বের অপারেশনে দরকার ২লাখ টাকা

u.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক : উখিয়া জালিয়াপালং ইউনিয়নের মনখালী বটতলাী রাস্তার মাথা পূর্ব পাড়া এলাকার দিন মজুর অসহায় আনোয়ারুল ইসলামের কনিষ্ঠ পুত্র মুবিন(৬) পড়ে স্থানীয় একটি মাদ্রাসার শিশু শ্রেণিতে। তিন ভাই এক বোনের মধ্যে সে সবার ছোট। বোন হচ্ছে সবার বড় আয় রোজকারের একমাত্র ভার বাবার হাতেই। মুবিনকে বাঁচাতে সব সহায়সম্বল শেষ করে সিদ্ধান্তহীনতায় ভোগছে পরিবার।কে জানত শরীরের হৃদপিণ্ড ও বাল্বে বাসা বেঁধেছে মারাত্মক এক ব্যাধি।যে বয়সে সময় হাসিখুশিতে ভরপুর হয়ে খেলার মাঠে খেলার করা কথা সেই মাত্র ৬ বছর শিশুকে হাসপাতালের বারান্দায় বারান্দায় দৌড়াতে হচ্ছে। অনেক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর জানা যায় তার হার্ট ও বাল্বের সমস্যা। তখন থেকেই তার ভয় পাওয়া শুরু হয়েছে।

ডাক্তার বলছে অপারেশন করতে তার দরকার হবে ২লাখ টাকার মতো।যে দিন মজুরের পারিবারের অর্থনৈতিক অবস্থা নুন আনতে পান্তা ফুরানোর দশা তার তার পক্ষে এত টাকা ব্যবস্থা করা কল্পনাতীত।এখন একমাত্র ভরসা আল্লাহ ছাড়া কেহ নেই।তাই সমাজের বিত্তশালী, প্রবাসী ও মানবিক হৃদয়ের মানুষের পানে সাহায্যের তরে হাত পেতে চেয়ে আছে।কথাই আছে না দশের লাঠি একের বোঝা।সবাই এগিয়ে আসুন শিশুটির চিকিৎসায়।

ছেলের দীর্ঘ চিকিৎসায় বাবার ক্ষুদ্র আয়ের সংসারেরও সব শেষ। চিকিৎসার ব্যয় মেটাতে না পেরে মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ার উপক্রম তার অসহায় বাবার।মানুষের কাছে এখন হাত পেতে পুত্রের চিকিৎসা চালাচ্ছেন তিনি। জীবন মৃত্যুর শঙ্কা নিয়ে শিশু মুবিন এই সুন্দর পৃথিবীতে বেঁচে থাকতে চায়। চিকিৎসার অর্থের জন্য সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার অনুরোধ করেছে তার পরিবার।

শিশু মুবিনের মৎসবীজী বাবা জানান,এর আগে কক্সবাজার আল ফুয়াদ হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসাপাতালে চিকিৎসা করে কোন ফল না পেয়ে অবশেষে রাজধানী ঢাকার ধানমন্ডি ইবনে সিনা পিডিয়াট্টিক কার্ডিয়াক সেন্টারে অধ্যাপক ড. কাজি আবুল হাসানের কাছে পরিক্ষা নিরিক্ষা করে তার হার্টে ও বাল্ব ছোট হয়ে গেছে বলে জানা গেছে। এই জন্য জরুরি ভিত্তিতে অপারেশন করতে ২লাখ টাকার মত দরকার।

আনোয়ারুল ইসলাম রোগীর বাবার পার্রসনাল বিকাশ নং -01840-930693