সৌদিয়া বাসের দুই যাত্রীর কাছে মিললো ১১ কেজি গাঁজা

Cannibas-11.4-Kg-Dt-11-03-21-2.jpeg

এম.এ আজিজ রাসেল :
রামু জোয়ারিয়ানালায় সৌদিয়া বাসের দুই যাত্রীর কাছ থেকে মিললো ১১ কেজি গাঁজা। বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) দুপুর ১টায় রাবার বাগান হাঁসখামার এর উত্তর পাশের্^ চেকপোষ্ট স্থাপন করে এ অভিযান চালানো হয়।
র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) সহকারি পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায় কতিপয় মাদক কারবারী চট্ট্রগ্রাম হতে কক্সবাজারগামী সৌদিয়া নামক যাত্রীবাহী বাস যার রেজি নং- চট্ট মেট্রো-ব-১১-০১৫৭’তে করে যাত্রী বেশে মাদকদ্রব্য গাঁজা নিজ হেফাজতে রেখে বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে বহন করে নিয়ে আসছে। এই সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৫, কক্সবাজার এর একটি চৌকস আভিযানিক দল রামু থানাধীন জোয়ারীনালা রাবার বাগান হাঁসখামার এর উত্তর পাশের্^ চট্টগ্রাম হতে কক্সবাজারগামী পাঁকা রাস্তার উপর চেকপোষ্ট স্থাপন করে তল্লাশী অভিযান শুরু করে। তল্লাশীর একপর্যায়ে উল্লেখিত যাত্রীবাহী বাসটি চেকপোস্টের সামনে আসলে র‌্যাব সদস্যরা বাসটিকে থামানোর সংকেত দেয়। এসময় বাস হতে দুইজন যাত্রী কৌশলে পালিয়ে যাওয়াকালে শহরের কুতুবদিয়া পাড়ার নুর মোহাম্মদের স্ত্রী আজিজা বেগম (২৪) ও কলাতলী ঝরঝরি পাড়ার মো. নুরু ছালামের পুত্র শরীফ হোসেন (১৯) কে আটক করা হয়। তাদের পালানোর কারণ জিজ্ঞাসা করলে তারা জানায়, তাদের সাথে মাদকদ্রব্য গাঁজা আছে। পরবর্তীতে উপস্থিত স্বাক্ষীদের সম্মুখে আটক আসামীদের সাথে থাকা ব্যাগ তল্লাশী করে সর্বমোট ১১.৪ (এগার কেজি চারশত গ্রাম) গাঁজা উদ্ধার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত আসামীরা স্বীকার করে যে, তারা দীর্ঘদিন যাবৎ মাদকদ্রব্য গাঁজা নিজেদের হেফাজতে রেখে ক্রয়-বিক্রয় করে আসছে।