টেকনাফ বিজিবির মানহানি মামলায় ব্লাস্ট এনজিও কর্মীর আদালতে আত্নসমর্পণ

b-1.jpg

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি : কক্সবাজারে টেকনাফের দমদমিয়া চেকপোস্টে ধর্ষণের মিথ্যা অভিযোগকারী ব্লাস্ট এনজিওকর্মীর বিরুদ্ধে বিজিবি’র করা চাঞ্চল্যকর ১০০ কোটি টাকার মানহানি মামলায় আদালতে আত্মসমর্পন করেছে ব্লাস্ট এনজিও কর্মী।

কক্সবাজারে টেকনাফের দমদমিয়া চেকপোস্টে ধর্ষণের মিথ্যা অভিযোগকারী ব্লাস্ট এনজিওকর্মীর বিরুদ্ধে বিজিবি’র করা চাঞ্চল্যকর ১০০ কোটি টাকার মানহানি মামলায় অভিযুক্ত ফারজানা আক্তার কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এর আদালতে আত্মসমর্পন করেছে। অদ্য ১৪ জানুয়ারি ২০২১ তারিখ সকালে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহ এর আদালতে আত্মসমর্পন করেন।আসামী পক্ষের আইনজীবীরা তার জামিন আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, গত ০৮ অক্টোবর তারিখে টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২ বিজিবি) এর অধীনস্থ দমদমিয়া চেকপোস্টে অটোরিকশা যাত্রী ব্লাস্ট এনজিও কর্মী ফারজানা আক্তারকে বিজিবির নারী সদস্যরা চেক/তল্লাশি করলে পরবর্তীতে সে বিজিবি সদস্যদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মিথ্যা অভিযোগ এনে অপপ্রচার চালায়। এ অপপ্রচারের প্রেক্ষিতে গত ১০ নভেম্বর ২০২০ তারিখে টেকনাফ ব্যাটালিয়ন(২বিজিবি) কর্তৃক কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে উক্ত ফারজানা আক্তারের বিরুদ্ধে ফৌজদারি ৫০০ ধারায় ১০০ কোটি টাকার মানহানীর মামলা দায়ের করা হয়।

গত ২২ নভেম্বর ২০২০ তারিখে টেকনাফ থানার ওসি (অপারেশনস) ইন্সপেক্টর শরিফুল কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ধর্ষণের মিথ্যা অভিযোগকারী ব্লাস্ট এনজিও কর্মীর বিরুদ্ধে বিজিবি’র চাঞ্চল্যকর মানহানি মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন।
তদন্ত প্রতিবেদনে ধর্ষণের কোন আলামত পাওয়া যায়নি। গত ২২ নভেম্বর ২০২০ তারিখে শুনানী শেষে ১৪ জানুয়ারি ২০২১ তারিখে আদালতে হাজির হওয়ার জন্য আসামীর বিরুদ্ধে সমন জারি করে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহাঃ হেলাল উদ্দিনের আদালত।
Next hearing on 10 March 2021…