উখিয়ায় ডেকোরেশন কর্মচারীকে গলা কেটে হত্যা, পলাতক অপর রোহিঙ্গা কর্মচারী

Snapshot_8.png

ফারুক আহমদ, উখিয়া(কক্সবাজার) প্রতিনিধি :

কক্সবাজারের উখিয়ার কোটবাজারের মোহাম্মদ ফোরকান প্রকাশ কালু (১৪) নামের এক দোকান কর্মচারীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার (১০ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার কোটবাজারের দক্ষিণ স্টেশনের একটি ডেকোরেশনের দোকান থেকে এ কিশোরের গলা কাটা লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত কালু রত্নপালং ইউনিয়নের তেলিপাড়া এলাকার বশির আহমেদের ছেলে। সে দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় শাহ আলমের ডেকোরেটার্সের দোকানে কাজ করে আসছিল । স্থানীয়রা জানান রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বসবাসরত আয়াজও একই দোকানে কর্মচারী ছিল। বর্তমানে তিনি পলাতক।

দোকান মালিক শাহ আলম বলেন, শনিবার রাত ১২ টার দিকে কর্মচারী কালু ও রোহিঙ্গা আয়াজকে দোকানে রেখে বাড়িতে যাই । সকালে এসে কালুর মরদেহ দেখতে পায়।

নিহত কালুর বাবা বশির আহমেদ বলেন, কে বা কারা কেন আমার ছেলেকে হত্যা করেছে আমি এখনো জানি না। সকালে শুনতেই পায় আমার ছেলে গলাকাটা অবস্থায় পড়ে আছে। এখন আমি ছেলে হত্যাকারীদের গ্রেফতার চাই।

বিষয়টি নিশ্চিত করে উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আহমেদ সনজুল মোরশেদ বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে । হত্যাকাণ্ডের ঘটনা উদঘাটন করার জন্য সিআইডির ও পিবিআই এর পৃথক দু’টি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বলে জানিয়েছেন উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তদন্ত গাজী সালাউদ্দিন।