চকরিয়ায় বনাঞ্চলে বেড়েছে হরিণ শিকার ; ২কেজি মাংস উদ্ধার, ১জনের ৩মাসের জেল

Chakaria-Picture-30-11-20.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক : চকরিয়ায় বনাঞ্চল থেকে হরিণ শিকারের পর মাংস বিক্রির অভিযোগে নেপাল ধর নামের একব্যক্তিকে আটক করেছে বনবিভাগ। সোমবার তাকে উপজেলা ভ্রাম্যমান আদালতে পাঠানো হলে অপরাধ স্বীকারসাপেক্ষে আদালত তিনমাসের বিনাশ্রম কারাদÐ দিয়েছেন। এদিন দুপুরে ফাসিয়াখালী রেঞ্জের ডুলাহাজারা বনবিটের আওতাধীন পার্বত্য ফাঁসিয়াখালী ইউপির হায়দারনাশী এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়েছে। অভিযানে নেতৃত্ব দেন বনবিট কর্মকর্তা মোঃ ইলিয়াছ হোসেন। আটক নেপাল ধর লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউপির হায়দারনাশী এলাকার ভোলা ধরের ছেলে।
ডুলাহাজারা বনবিট কর্মকর্তা মো. ইলিয়াছ হোসেন জানান, একটি শিকারী সংঘবদ্ধ দল বনাঞ্চলের বন্যপ্রাণী হরিণ শিকার করছে বলে শুনেছি। এরপর দীর্ঘ দুইসপ্তাহ সময় ধরে বনাঞ্চলে পাহারা জোরদার করি। তিনদিন আগে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে কৌশল অভিযান চালিয়ে দুই কেজি হরিণের মাংসসহ নেপাল ধরকে আটক করি।
তিনি বলেন, সোমবার বিকালে আটককৃত ব্যক্তিকে চকরিয়া উপজেলা ভ্রাম্যমান আদালতে পাঠানো হয়। সেখানে অপরাধ স্বীকার করলে আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভুমি) মো.তানভীর হোসেন আটক নেপাল ধরকে তিনমাসের বিনাশ্রম কারাদÐের আদেশ দেন। তাকে চকরিয়া থানা পুলিশের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। ##