চাঁদে মিলেছে প্রচুর পানি

moon.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : নাসার বিজ্ঞানীরা পৃথিবীর একমাত্র উপগ্রহ চাঁদে বিপুল পরিমাণ পানির সন্ধান পেয়েছেন। গত সোমবার নেচার অ্যাস্ট্রোনমিতে পানি পাওয়ার প্রমাণ সমেত দুটি গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে নাসা। যাতে বলা হয়েছে, উপগ্রহটি অনুমানের চেয়েও অনেক বেশি পানির সন্ধান মিলেছে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নাসার বিজ্ঞানীরা তাদের করা গবেষণা প্রতিবেদনে বলেছেন, চাঁদের সূর্যালোকের পৃষ্ঠদেশে এই প্রথম পানির অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। আগে ধারণা করা হয়েছিল চাঁদে অল্প বিস্তর পানি থাকতে পারে। কিন্তু উপগ্রহটিতে অনুমানের চেয়েও অনেক বেশি পানির সন্ধান মিলেছে।

নাসার বিজ্ঞানীরা এই অর্জনকে ‘আণবিক জলের অস্তিত্বের স্পষ্ট এই আবিষ্কার’ বলে মন্তব্য করেছেন। ধারণা করা হচ্ছে, চাঁদে ভবিষ্যৎ অভিযান ও মহাশূন্যে আরও গভীর অভিযান ও অনুসন্ধান চালানো সহজ করবে। বিজ্ঞানীদের লক্ষ্য এখন, চাঁদের প্রাকৃতিক উপকরণগুলোতে পানির আধারটি আটকে রাখা।

ম্যারিল্যান্ডের নাসার গডার্ড স্পেস ফ্লাইট সেন্টারের পোস্ট ডক্টরাল ফেলো ক্যাসে হনিব্যাল একটি ভার্চ্যুয়াল সভায় চাঁদে বিপুল পরিমাণ পানির একটা অনুমান দিয়েছেন। তার ভাষ্য, চাঁদের মাটির প্রতি এক ঘন মিটারে গড়পড়তায় পানির পরিমাণ হতে পারে ১২ আউন্সের এক বোতল।

নাসার মানব অনুসন্ধান অধিদপ্তরের পরিচালক জ্যাকব ব্লিচার বলেছেন, চন্দ্রপৃষ্ঠে পানির এই আধারের প্রকৃতিটা বিজ্ঞানীদের বুঝতে হবে। এর ফলে এসব পানি ভবিষ্যতে চাঁদের অনুসন্ধান চালনাকারীদের ব্যবহারের জন্য কতটা সহজ হবে তা জানায় সহজ হবে।