টেকনাফ উপজেলা আইন-শৃংখলা কমিটির সভায় দাবী ; চিহ্নিত মাদক কারবারীদের বিরুদ্ধে অভিযান জোরদার করা হোক

Teknaf-Pic-A-14-09-20-scaled.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে মাসিক আইন-শৃংখলা ও চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভায় বক্তারা বলেছেন- সেনাবাহিনীর অবঃ মেজর সিনহা মোঃ রাশেদ খান হত্যার পর থেকে টেকনাফে ইয়াবা চোরাচালান আশংকাজনকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে। বেপরোয়া হয়ে উঠছে ইয়াবা ব্যবসায়ীরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের ভেতর থাকতেই এসব মাদক কারবারী ও সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় আনতে হবে। তাই সরকারের ঘোষণা অনুসারে মাদক ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি বাস্তবায়নে আরো অভিযান জোরদার করার বিকল্প নেই। উক্ত বিষয়ে সংশ্লিষ।ট দপ্তরের উর্ধ্বতন মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়।

১৪ সেপ্টেম্বর (সোমবার) সকাল ১১ টায় টেকনাফ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে মাসিক আইন-শৃংখলা কমিটির সভা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টেকনাফ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল আলম।
অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ শফিক মিয়া, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তাহেরা আক্তার মিলি, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিঃ সহসভাপতি জহির হোসেন এমএ, বাহারছড়ার ইউপি চেয়ারম্যান মৌঃ আজিজ উদ্দিন, হ্নীলা ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলী, সাবরাং ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান শরীফ হোসেন, সদর ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আবু ছৈয়দ, সেন্টমার্টিন ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহমদ, শাহপরীরদ্বীপ সাংগঠনিক আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব সোনা আলী, উপজেলা কমিনিউটি পুলিশিংয়ের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কালাম, কোস্টগার্ড, পুলিশসহ বিভিন্ন সরকারী ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ।উক্ত সভায় টেকনাফ উপজেলার সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করেই বক্তারা আরো মাদক ও সন্ত্রাস বিরোধী অভিযানের জোরদাবী জানান।