টেকনাফে জব্দকৃত ৬টি ডাম্পার জরিমানা ও মুছলেকায় ছাড়

utr-scaled.jpg

জসিম উদ্দিন টিপু : টেকনাফে যৌথ টাস্কফোর্সের অভিযানে অবৈধভাবে মাটি পাচারের দায়ে জব্দকৃত ৬টি ডাম্পার হতে সাড়ে ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা আদায় এবং মুছলেকায় আদায় করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

২০ ফেব্রæয়ারী দুপুরে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ আবুল মনসুরের নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালতে চোরাই মাটি ভর্তি এসব ডাম্পার হাজির করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইনে এসব ডাম্পারের মালিক হ্নীলা জাদীমোরার আব্দুল জলিলের পুত্র জাকির হোসেন (২১), পৌরসভার কুলাল পাড়ার আলী আহমদের পুত্র রহুল আমিন (২২), লেদা আলী মিয়ার পুত্র মোহাম্মদ হেলাল (২১), সৈয়দ কাছিমের পুত্র জামাল হোসন (১৮), রামু খুনিয়াপালংয়ের ফরিদের পুত্র মোঃ ফারুককে ১লাখ টাকা করে এবং লেদা এলাকার মোঃ হোসনের পুত্র মোঃ রফিকের নিকট হতে ৫০ হাজার টাকা জরিমানার পাশাপাশি আগামী বনজ সম্পদ উজাড় ও পরিবেশ বিধ্বংসী কার্য্যক্রম না করার মুছলেকা নিয়ে জব্দকৃত ডাম্পার ছেড়ে দেওয়া হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সাইফুল ইসলাম সাইফ জানান, আগামীতে পাহাড় কর্তন ও পরিবেশ বিধ্বংসী কাজে জড়িত যানবাহন আটক হলে সরাসরি মামলা দায়ের করে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত ১৯ ফেব্রæয়ারী ভোররাতে বিভাগীয় বন কর্মকর্তার নির্দেশে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ আবুল মনসুর ও রেঞ্জ কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক আহমদের নেতৃত্বে বিশেষ টাস্কফোর্স অবৈধভাবে পাহাড় ও টিলার মাটি কেটে পাচারের সময় অভিযান চালিয়ে জব্দ করে। ###