বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে চীন!

corona_3.jpg

অনলাইন ডেস্ক :

চীনে মহামারি আকার ধারণ করেছে করোনাভাইরাস। দেশটির হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে উৎপত্তি হওয়া ভাইরাসটি ইতোমধ্যে বিশ্বের অনেক দেশেই ছড়িয়ে পড়েছে। চলমান অবস্থায় বিশ্বব্যাপী সতর্কতা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

ইতোমধ্যে অনেক দেশই তাদের নাগরিকদের চীন ভ্রমেণ নিষেধাজ্ঞা জারিসহ চীনের সঙ্গে সব ধরনের ফ্লাইট স্থগিত করেছে। আর এসব কারণে সাময়িকভাবে হলেও বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে চীন!

গত ৩১ জানুয়ারি রাত থেকে চীনে সরাসরি ফ্লাইট বন্ধ করে দিয়েছে তাদের মিত্রদেশ রাশিয়া। এছাড়া, রাশিয়া তাদের নাগরিকদের চীন থেকে ফেরত নিয়ে যাওয়া শুরু করেছে।

চীনের আরেক মিত্রদেশ পাকিস্তানও সাময়িকভাবে সেখানে সরাসরি ফ্লাইট স্থগিত করেছে। পাকিস্তানের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (সিএএ) মুখপাত্র আবদুল সাত্তার বলেছেন, “আমরা আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চীনের সঙ্গে সব ধরনের ফ্লাইট স্থগিত করেছি।”

চলতি সপ্তাহ থেকেই চীনে সব ফ্লাইট স্থগিত করার ঘোষণা দিয়েছে ভিয়েতনাম এয়ারলাইনস। সংস্থাটি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ভিয়েতনাম, বেইজিং, সাংহাই, গুয়াংজু ও শেনজেনের ফ্লাইট স্থগিত করা হবে। এছাড়া, ৫ ফেব্রুয়ারি থেকে চেংদু ও ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ম্যাকাওয়ের সব ফ্লাইট স্থগিত করা হবে।

১ ফেব্রুয়ারি থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত চীনা নাগরিকদের জন্য ভিসামুক্ত ভ্রমণ ব্যবস্থা স্থগিত করেছে আর্মেনিয়া।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) প্রথম দেশ হিসেবে চীনে সব ধরনের ফ্লাইট বন্ধ করে দিয়েছে ইতালি।

চীনা পর্যটকদের সিঙ্গাপুরে প্রবেশ ও চীনা পাসপোর্টধারীদের ভিসা স্থগিত করছে সিঙ্গাপুর সরকার।

নিজ দেশের নাগরিকদের চীন ভ্রমণ না করার পরামর্শ দিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ওমানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। আর মধ্যপ্রাচ্যের প্রথম দেশ হিসেবে চীনের সঙ্গে সব ফ্লাইট বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে কাতার।

চীন থেকে সব ফ্লাইট স্থগিত করেছে তুর্কি এয়ারলাইনসও। আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এসব ফ্লাইট স্থগিত থাকবে।

চীনের প্রতিবেশী দেশ মঙ্গোলিয়া আগামী ২ মার্চ পর্যন্ত চীনে প্রবেশের সব বন্দর বন্ধ করে দিয়েছে। এছাড়াও, চীন হয়ে যাওয়া অন্য দেশের পর্যটকরাও মঙ্গোলিয়ায় প্রবেশ করতে পারবে না বলে জানিয়েছে দেশটি।

উজবেকিস্তান সরকার রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থাকে চীনের সঙ্গে সব ফ্লাইট স্থগিত করার নির্দেশ দিয়েছে।

চীনের সঙ্গে সব ধরনের ফ্লাইট স্থগিত করেছে ইরান। ইরানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাইদ নামাকির বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম।

সিডনি-বেইজিং ও সিডনি-সাংহাই রুটে সরাসরি ফ্লাইট বন্ধ করে দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। গতকাল অস্ট্রেলিয়া সরকার এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে।