টেকনাফে গুলিতে অজ্ঞাত মাদক কারবারী নিহত ; ১লাখ ৩০হাজার ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার

Teknaf-Pic-B-24-01-20-scaled.jpg

হুমায়ূন রশিদ : সীমান্ত জনপদ টেকনাফে বিজিবি ও মাদক কারবারীদের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এতে অজ্ঞাত এক মাদক কারবারী হাসপাতালে গুলিবিদ্ধ হয়ে হাসপাতালে নিহত হলেও বিজিবির দুই জওয়ান আহত হয়েছে। এসময় মাদক, অস্ত্র ও বুলেট উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা যায়, ২৪ জানুয়ারী (শুক্রবার) রাতের প্রথম প্রহর পৌনে ২টারদিকে টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের দমদমিয়া বিওপি ক্যাম্পের একটি বিশেষ টহলদল ইয়াবার চালান আনার সংবাদ পেয়ে জাদিমোরা মসজিদ পয়েন্টে কৌশলী অবস্থান নেয়। কিছুক্ষণ পর কয়েকজন লোক বস্তা মাথায় করে চলে যাওয়ার সময় বিজিবি জওয়ানেরা তাদের চ্যালেঞ্জ করে। তখন মাদক কারবারী চক্রের সহযোগীরা বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করলে ল্যান্সনায়েক মোঃ নুরুল আমিন (২৭) ও সিপাহী শাহিনুর ইসলাম (২৫) আহত হয়। তখন বিজিবি জওয়ানেরা সরকারী সম্পদ এবং জান রক্ষার্থে কিছুক্ষণ পাল্টা গুলিবর্ষণ করার পর পরিস্থিতি শান্ত হলে ঘটনাস্থল তল্লাশী করে ১লাখ ৩০হাজার পিস ইয়াবা, ১টি দেশীয় তৈরী বন্দুক ও ১ রাউন্ড তাঁজা কার্তুজসহ গুলিবিদ্ধাবস্থায় অজ্ঞাত পরিচয়ী এক ব্যক্তিকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে আহত বিজিবি সদস্যদের চিকিৎসা দেওয়া হলেও হাসপাতালে কর্তব্যরত ডাক্তার গুলিবিদ্ধ মাদক কারবারীকে মৃত ঘোষণা করে। নিহত মাদক বহনকারী উখিয়া উপজেলার থাইংখালী ক্যাম্পে অবস্থানকারী রোহিঙ্গা নাগরিক বলে জানা গেলেও নাম পরিচয় জানা যায়নি। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান (পিএসসি) জানান, এই অভিযানে উপরোক্ত মাদক ও অস্ত্রাদি উদ্ধার করা হয়েছে। এই ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ##