রবইতলীর শামসুন্নাহার চৌধুরী নিদ্রায় শায়িত

Chakaria-Picture-16-01-2020.jpg

এম.জিয়াবুল হক : রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, শিক্ষক, সাংবাদিক জনপ্রতিনিধিসহ সর্বস্তরের হাজারো জনতার শেষ শ্রদ্ধায় চিরনিদ্রায় শায়িত হয়েছেন-চকরিয়া উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নের বাসিন্দা শামসুন্নাহার চৌধুরী। তিনি স্বাধীনত্তোর বরইতলী ইউনিয়ন পরিষদের প্রথম নির্বাচিত চেয়ারম্যান মরহুম মোস্তাক আহামদ চৌধুরীর সহধর্মীনি, বরইতলী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য এ.টি.এম. জিয়াউদ্দিন চৌধুরী, সমাজ সেবক এ.কে.এম. শামসুদ্দিন চৌধুরী, বিশিষ্ট আইনজীবি এডভোকেট মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী ও বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব কফিল উদ্দিন চৌধুীর মাতা।
শামসুন্নাহার চৌধুরী দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। সম্প্রতি তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে চিকিৎস্বার্থে ভর্তি করা হয় চট্টগ্রাম সি.এস.সি.আর. হাসপাতালে। সেখানে তিনি গত ১৫ জানুয়ারী সকাল সোয়া ১০ টায় মৃত্যু বরণ করেন। দক্ষিণ চট্টগ্রামের অন্যতম বিশিষ্ট জমিদার কন্যা শামসুন্নাহার চৌধুরীর বাবা মরহুম হেফাজতুর রহমান চৌধুরী ছিলেন বাঁশখালী উপজেলার পুইছড়ি ইউনিয়নের একদার ভাইস-প্রেসিডেন্ট।
গতকাল চট্টগ্রামের মিসকিন শাহ্্ মাজার প্রাঙ্গনে মরহুম শামসুন্নাহার চৌধুরীর প্রথম নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর গত ১৬ জানুয়ারী দুপুর ২ টায় মরহুমের জেষ্ট্য পুত্র শহীদ মনসুর উদ্দিন চৌধুরী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে ২য় নামাজে জানাযা শেষে তাঁকে পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়।
জানাযা পুর্ব এক সংক্ষিপ্ত স্মৃতি চারণে বক্তাগণ বলেন একজন পরহেজগার, ধার্মিক এবং অতিথিপরায়ণ এ নারী স্থাণীয় জনসাধারণের সম্মানের পাত্র ছিলেন। আর এ কারণেই তিনি স্বামী মোস্তাক আহামদ চৌধুরী এবং ছেলে জিয়াউদ্দিন চৌধুরীকে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালনে সক্ষম হয়েছিলেন। তাঁর জীবিত অন্য দুইছেলে ও স্ব-স্ব ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত। মরহুমার নামাজে জানাযায় অংশগ্রহন করেন সাবেক জেলা চেয়ারম্যান ও সংসদ সদস্য এ.এইচ. সালাহউদ্দিন মাহমুদ, সাবেক সংসদ সদস্য মোঃ ইলিয়াছ, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল করিম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক সৈয়দ শাহাব উদ্দিন মাহমুদ, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সরোয়ার আলম, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, চকরিয়া সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ এ.কে.এম. গিয়াস উদ্দিন, সাবেক উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান এস.এম. জাহাঙ্গীর আলম বুলবুল, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরী, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগ নেতা আবু হেনা মোস্তফা কামাল, আমিনুর রশিদ দুলাল, জি.এম. আবুল কাশেম, বরইতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জালাল আহামদ সিকদার। এছাড়াও স্থাণীয় বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার বিপুল সংখ্যক মানুষ মরহুমের জানাজায় অংশ গ্রহণ করেন।##