porno izle sex hikaye
corum surucu kursu malatya reklam

কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের ১২তম বোর্ড সভা সম্পন্ন

.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : ৯ অক্টোবর ২০১৯ তারিখ বেলা ১২টায় কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের ১২তম বোর্ড সভা কউক সভাকক্ষে কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে: কর্নেল (অব:) ফোরকান আহমদ, এলডিএমসি, পিএসসি এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
সভার শুরুতে সভাপতি উপস্থিত সকলের সাথে পরিচিতি হন। অত:পর তিনি জানান যে, বিগত ১৬ জানুয়ারী ২০১৮ ইং, ১০ তলা বিশিষ্ট কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নিজস্ব অফিস ভবন একনেক সভায় চূড়ান্ত অনুমোদন লাভ করে। তিনি অফিস ভবন নির্মানের বর্তমান অগ্রগতি তুলে ধরেন এবং নির্মাণ কাজ দ্রæত করার জন্য অনুরোধ জানান। এছাড়াও তিনি বলেন, কক্সবাজার শহরস্থ ঐতিহ্যবাহী লালদিঘী, গোলদিঘী ও বাজারঘাটা পুকুর পুনর্বাসনসহ ভৌত সুযোগ-সুবিধার উন্নয়ন প্রকল্পের কাজও দ্রæত এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি আরো জানান যে, আগামী ১৭ মার্চ ২০২০ বঙ্গবন্ধু জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে উক্ত প্রকল্প দুটি উদ্বোধন করতে চাই। তাই তিনি প্রকল্প পরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কাজ সমাপ্ত করার অনুরোধ জানান।
সভায় কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষে সদস্য (প্রকৌশল) লে: কর্নেল মোহাম্মদ আনোয়ার উল ইসলামকে বিভিন্ন প্রকল্পের অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি জানান যে, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যেই যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য হলিডে মোড়-বাজারঘাটা-লারপাড়া (বাসষ্ট্যান্ড) প্রধান সড়ক সংস্কারসহ প্রশস্তকরণ প্রকল্পটি গত ১৬ জুলাই ২০১৯ তারিখ অনুষ্ঠিত একনেক সভায় অনুমোদন লাভ করে। তাই খুব শীঘ্রই সরকারি বিভিন্ন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে কাজ শুরু করা হবে। তাছাড়া সুগন্ধা মোড়-সুগন্ধা পয়েন্ট-লাবনী পয়েন্ট সংযোগ সড়ক প্রশস্তকরণ ও সৌন্দর্যবর্ধন প্রকল্প বিষয়েও ইতোমধ্যে পরিকল্পনা মন্ত্রনালয়ে পিইসি সভা হয়েছে। খুব শীঘ্রই উক্ত প্রকল্প অনুমোদনপূর্বক কাজ শুরু করা হলে কক্সবাজারে যোগাযোগ ব্যবস্থার দৃশ্যমান উন্নয়ন হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
এছাড়া কউক চেয়্যারম্যান বলেন, এছাড়াও (ক) পর্যটন নগরী কক্সবাজার জেলার মহাপরিকল্পনা (খ) বাঁকখালী নদী সংলগ্ন ১৫০ ফুট প্রশস্ত সবুজ বেস্টনীসহ সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প, (গ) লাইট হাউজ-পাহাড়তলী- শহরের প্রধান সড়ক পর্যন্ত ২.৫ কিলোমিটার সংযোগ সড়ক প্রশস্তকরণ (ঘ) সার্কিট হাউজ হতে আনবিক শক্তি কমিশন পর্যন্ত বিকল্প সড়ক নির্মাণ (ঙ) কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণ (চ) সুগন্ধা পয়েন্ট হতে কলাতলী পর্যন্ত ০.৮ কিলোমিটার সড়ক উন্নয়ন ইত্যাদি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। প্রকল্পসমূহ বাস্তবায়নের ফলে কক্সবাজারে পর্যটন শিল্প বিকাশে ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। উপস্থিত বোর্ড সদস্যবৃন্দ কউকের উদ্যোগকে স্বাগত জানান এবং সকলে সার্বিকভাবে সহযোগিতার আশ^াস প্রদান করেন।
বোর্ড সভায় উপস্থিত ছিলেন লে. কর্নেল মোহাম্মদ আনোয়ার উল ইসলাম, সদস্য (প্রকৌশল), কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ; মো: ছিদ্দিকুর রহমান, উপসচিব, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়; আবু জাফর রাশেদ, সচিব (উপসচিব) কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, কক্সবাজার; জহির উদ্দিন আহমদ, নির্বাহী প্রকৌশলী, গণপূর্ত বিভাগ কক্সবাজার; মীর মঞ্জুরুর রহমান, উপপ্রধান স্থপতি, স্থাপত্য অধিদপ্তর; মো: রাশিদুল হাসান, সহকারী অধ্যাপক, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ, চুয়েট; মো: শহীদুল ইসলাম, এ.এস.পি (ডিএসবি) কক্সবাজার; মো: হুমায়ুন কবির, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা, কক্সবাজার দক্ষিণ বন বিভাগ; আবু মোর্শেদ চৌধুরী, সভাপতি কক্সবাজার চেম্বার অব কমার্স; মো: কামরুল হাসান, সিনিয়ল কেমিস্ট, পরিবেশ অধিদপ্তর, কক্সবাজার; ডা. সাইফুদ্দিন ফরাজি, সদস্য, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, ইঞ্জিনিয়ার বদিউল আলম, এডভোকেট প্রতিভা দাশ প্রমূখ।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top
bahis siteleri