লেদায় ঠেলা জেলের বেশে খালাসকৃত ইয়াবার চালান নিয়ে স্থানীয় পাহাড়ী ডাকাত দলের মধ্যে গোলাগুলি

upd.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : হ্নীলার লেদায় ঠেলা জেলের ছদ্মবেশে খালাসকৃত বড় ধরনের ইয়াবার চালানের ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে পাহাড়ে অবস্থানকারী স্থানীয় দুই ডাকাত গ্রুপের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনায় জনসাধারণ উদ্বিগ্ন হয়ে উঠেছে।

জানা যায়, ৮অক্টোবর বিকাল সাড়ে ৫টারদিকে হ্নীলা পশ্চিম লেদা নুরালী ঘোনায় পাহাড়ে অবস্থানকারী ডাকাত দলের মধ্যে থেমে থেমে বেশ কয়েক রাউন্ড গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এতে তাৎক্ষণিক হতাহতের খবর পাওয়া না গেলেও আইন প্রয়োগকারী সংস্থা এবং জনসাধারণের মধ্যে তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়েছে। নুরালী পাড়ার কয়েকজন বাসিন্দা গোলাগুলির শব্দ শুনতে পেয়েছে বলে জানান।

এই ব্যাপারে নয়াপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির সাব ইন্সপেক্টর মহি উদ্দিন জানান,এই ধরনের গোলাগুলির কোন ধরনের সংবাদ আমরা পায়নি। তবে খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে।

এইদিকে বিকালে আকস্মিক গোলাগুলির ঘটনা তথ্যানুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে বড় ধরনের মাদকের চালান খালাস নিয়ে স্থানীয় দুই ডাকাত গ্রæপের মধ্যে এই ঘটনা ঘটে। ভোর ফজরের আজানের সময় দক্ষিণ লেদা মইদ্দা বাপের ব্রীজ পয়েন্ট সংলগ্ন নাফনদী দিয়ে দুই রোহিঙ্গা ৪ বস্তা ইয়াবা নিয়ে এলে দা-কিরিচ ও ভারী অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে পশ্চিম লেদার বেলা কাদিরের পুত্র নুরু ছালাম, মোঃ নুর, মকতুল হোছনের পুত্র নুরুল আমিন, আবুল হোছনের পুত্র আব্দুল খালেক, আব্দুল আউয়াল, গফুর মিয়ার পুত্র রুবেলসহ ৮/১০ জনের একটি গ্রæপ এই ইয়াবার চালানটি খালাস করে নুরালী পাড়া ঘোনায় নিয়ে যায়। হয়তো এই মাদক চালানের ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে দ্বন্দের জেরধরে বিকালে থেমে থেমে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।