porno izle sex hikaye
corum surucu kursu malatya reklam

ভূমিধসের পূর্বাভাস বুধবারও বহাল

hill-20190911120657.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : চট্টগ্রাম, সীতাকুণ্ড অঞ্চলে গতকাল মঙ্গলবার অল্প বৃষ্টিপাত হয়েছে। এছাড়া রাঙ্গামাটিতে বৃষ্টি না থাকলেও কুতুবদিয়া ৮১ মিলিমিটার, কক্সবাজারে ১৪০ এবং টেকনাফে ২২৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। অন্যদিকে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাতে মঙ্গলবার চট্টগ্রামের পাহাড়ি এলাকায় ভূমিধসের পূর্বাভাস দিয়েছিল আবহাওয়া অফিস। আজ বুধবারও তা বহাল রেখেছে।

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) আবহাওয়া অধিদফতরের পূর্ভাবাসে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সতর্কবার্তায় বলা হয়, চট্টগ্রাম, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে। অতি ভারী বৃষ্টির কারণে চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ি এলাকায় কোথাও কোথাও ভূমিধস হতে পারে।

পূর্বাভাসে বলা হয়, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ এবং রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে। তবে সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

আগামী তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা কমতে পারে বলেও জানায় আবহাওয়া অফিস।

নদীবন্দরের সতর্কবার্তায় বলা হয়, মঙ্গলবার দিনগত রাত ১টা পর্যন্ত রংপুর, রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ফরিদপুর, মাদারিপুর, কুষ্টিয়া, যশোর, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, কুমিল্লা, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার ও সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ/দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top
bahis siteleri