porno izle sex hikaye
corum surucu kursu malatya reklam

চকরিয়ায় আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস পালিত

Chakaria-Picture-08-09-2019.jpg

এম.জিয়াবুল হক : ‘‘বহু ভাষায় সাক্ষরতা, উন্নত জীবনের নিশ্চয়তা’’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায় আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস-২০১৯ইং পালিত হয়েছে। রোববার সকাল ১০টায় উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে একটি র‌্যালি বের হয়ে সদরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে উপজেলা পরিষদ মোহনা মিলনায়তনে এসে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
চকরিয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা গুলশান আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলার নবাগত সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো.তানভীর হাসান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন চকরিয়া উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম, সহকারি প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আনোয়ারুল কাদের, সহকারি শিক্ষা কর্মকর্তা আবু জাফর , সহকারি শিক্ষা কর্মকর্তা শাহরিয়ার সুলতানা।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চিরিঙ্গা মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তছলিম উদ্দিন, প্রধান শিক্ষক মমতাজ উদ্দিন আহমদ, কাজিরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জিএম রুকন উদ্দিন ছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি উপজেলার নবাগত সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো.তানভীর হাসান বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষাখাতের অগ্রউন্নয়নে পরিকল্পিতভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থীদের জন্য মেধানির্ভর শিক্ষার সম্ভাবনার দ্বার উম্মোচন করেছে। তাঁর সদিচ্ছার কারনে আজ শিক্ষার্থীরা বিনা বেতনে লেখাপড়া সুযোগ পাচ্ছে। শিক্ষার সুষ্ট পরিবেশ নিশ্চিতে সরকার হাজার কোটি টাকা বরাদ্দে অবকাঠামোগত উন্নয়নে সব ধরণের কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করছেন।
তিনি বলেন, বর্তমানে বছরের প্রথমদিন শিক্ষার্থীরা নতুন পাঠ্যবই পাচ্ছে। লেখাপড়া করতে সব ধরণের উপবৃত্তি সুবিধা পাচ্ছে। মেধাবীদের সরকারি চাকুরী নিশ্চিত করা হচ্ছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চালু করা হয়েছে মিড ডে মিল প্রকল্পসহ নানা ধরণের প্রনোদনা প্রকল্প। যাতে শিক্ষার্থীরা এসব সুবিধা নিয়ে সুন্দর পরিবেশে লেখাপড়া করতে পারে। নিজেকে আগামীর জন্য দক্ষ মানবসম্পদ হিসেবে তৈরী করতে পারে।
তিনি আরও বলেন, সবাইকে মনে রাখতে হবে লেখাপড়ার মাধ্যমে নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থীদেরকে সুনাগরিক হিসেবে তৈরী করতে হবে। আজকের নতুন প্রজন্ম হবে আগামী দিনের দেশ গড়ার কারিগর। তাই সেইভাবে নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থীদের তৈরী করতে অভিভাবক ও শিক্ষক মন্ডলীকে সজাগ ভুমিকা পালন করতে হবে। #

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top
bahis siteleri