প্রকাশিত সংবাদে দুই ভাগিনাকে জড়ানোয় সৌদি প্রবাসী মামা রশিদের প্রতিবাদ

protibad-11.jpg

বার্তা পরিবেশক : গত ১৭ আগষ্ট টেকনাফ টুডে অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত “ হ্নীলাকে মাদকমুক্ত করতে কৌশলে থাকা স্থানীয় ও রোহিঙ্গা ইয়াবা কারববারীদের আইনের আওতায় আনা জরুরী!” শীর্ষক সংবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। যা বিশেষ মহলের ভূঁয়া তথ্যের ভিত্তিতে প্রকাশিত সংবাদে আমার পরিবারের নিরীহ সদস্যদের জড়ানো হয়েছে। এরফলে নিরীহ মানুষ হয়রানির শিকার হলে দায় কে বহন করবে?
আমি আপনাদের সদয় অবগতির জন্য আমার ভাগিনা, হাসান আলীর পুত্র জাকির হোসেন লেদা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র এবং অপর ভাগিনা, নুরুল কবিরের পুত্র আব্দুৃল মাজেদ ব্রিকফিল্ডের গাড়ি চালক। আমার জানামতে তারা এই ধরনের সমাজ ও রাষ্ট্রবিরোধী কাজে জড়িত নয়। এলাকায় একটি মহল আমার পরিবারের সুনাম নষ্ট করার জন্য পরিকল্পিতভাবে সাংবাদিক ভাইদের এই ধরনের মিথ্যা, বানোয়াট উদ্দেশ্য প্রণোদিত তথ্য দিয়ে বিভ্রান্ত করছে। আগামীতে সাংবাদিক ভাইদের দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনের আহবান জানাচ্ছি।
আমি এই ধরনের ষড়যন্ত্রের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে আইন-শৃংখলা বাহিনীকে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহবান জানাচ্ছি।

প্রতিবাদকারী :
সৌদি প্রবাসী মামা রশিদ আহমদ
পিতা:- মৃত ছিদ্দিক আহমদ
দক্ষিণ আলীখালী, হ্নীলা, টেকনাফ।