হ্নীলায় বন্দুক যুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী বাবুল নিহত

Babul.jpg

বিশেষ প্রতিবেদক : টেকনাফে পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানে গোলাগুলিতে হ্নীলা পশ্চিম সিকদার পাড়ার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী বাবুল নিহত হয়েছে। এসময় পুলিশের ৩জন সদস্য আহত হলেও ঘটনাস্থল হতে মাদক ও অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

সুত্র জানায়, ১৬ আগষ্ট (শুক্রবার) ভোররাত আড়াই টায় টেকনাফ মডেল থানা পুলিশের একটি দল উপজেলার হ্নীলা পশ্চিম সিকদার পাড়ার বার্মা কলোনীতে জনৈক আনোয়ারের বাড়ি সংলগ্ন পাহাড়ে মাদক উদ্ধার অভিযানে যায়। এসময় মাদক কারবারীদের একটি গ্রæপ পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করলে এসআই মোঃ বাবুল (৩৩), কনস্টেবল মোঃ আজিজ (২৩),রয়েল বড়ুয়া (২৩) আহত হয়। পুলিশও সরকারী সম্পদ ও জানমাল রক্ষায় পাল্টা ৩৮ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করলে হামলাকারীরা পাশর্^বর্তী পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পর ঘটনাস্থল তল্লাশী করে ১টি দেশীয় অস্ত্র, ৮ রাউন্ড শর্টগানের তাজা বুলেট, ৭ রাউন্ড বুলেটের খোসা ও ৫হাজার ইয়াবাসহ গুলিবিদ্ধ এক ব্যক্তিকে উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করে।

টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে আহত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দেওয়ার পর গুলিবিদ্ধ ব্যক্তিকে কক্সবাজার হাসপাতালে রেফার করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গুলিবিদ্ধ ব্যক্তি মারা যায়। খবর পেয়ে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন এবং সুরতহাল রিপোর্ট তৈরীর পর নিহত ব্যক্তি হ্নীলা পশ্চিম সিকদার পাড়ার আনোয়ার হোছনের পুত্র চিহ্নিত মাদক কারবারী ও মাদক মামলার আসামী মোঃ বাবুল (২৬) বলে সনাক্ত করে। মৃতদেহ উদ্ধার করে পোস্টমর্টেমের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

মাদক উদ্ধার অভিযানে গোলাগুলির ঘটনায় ৩জন পুলিশ আহত এবং গুলিবিদ্ধ এক ব্যক্তিসহ ইয়াবা,অস্ত্র উদ্ধারের পর কক্সাজার হাসপাতালে গুলিবিদ্ধ মাদক কারবারী মারা যায়। এই ব্যাপারে তদন্ত স্বাপেক্ষে টেকনাফ মডেল থানায় পৃথক মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে অফিসার্স ইনচার্জ প্রদীপ কুমার দাশ নিশ্চিত করেন।

এদিকে প্রশাসনের মাদক বিরোধী অভিযান জোরদার থাকা সত্বেও পশ্চিম সিকদার পাড়া, উলুচামরী, লেচুয়াপ্রাং ও মইন্যারজুম, সুলিশ পাড়া, হোয়াব্রাং, নাটমোরা পাড়া, আলীখালী, বৃহত্তর লেদা, মোছনী, নয়াপাড়া ও জাদিমোরাসহ বিভিন্ন স্থানে এখনো শতাধিক ব্যক্তি ইয়াবা বিক্রি, পাচার ও সেবনে জড়িত রয়েছে। যা নিয়ে একটি বিশেষ প্রতিবেদন আসছে…।