bahis siteleri deneme bonusu veren siteler bonusal casino siteleri piabet giriş piabet yeni giriş
izmir rus escortlar
porno izle sex hikaye
corum surucu kursu malatya reklam

উইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

image-188773-1560747576.jpg

স্পোর্টস ডেস্ক |
বিশ্বকাপে নিজেদের পঞ্চম ম্যাচে আজ ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে মাঠে নামছে বাংলাদেশ। টনটনে বিকাল সাড়ে ৩টায় শুরু হচ্ছে ম্যাচ।

আজকের ম্যাচে বাংলাদেশ একাদশে একটি পরিবর্তন নিশ্চিত। সেটি ব্যাটিংয়ে। টনটন ছোট মাঠ এ বিবেচনায় বোলিংয়ে একজন পেসার বেশি খেলানো হতে পারে। সে ক্ষেত্রে পরিবর্তন আসবে দুটি। তিন ম্যাচে নিজেকে মেলে ধরতে না পারা মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন আজ দলে থাকছেন না এটি মোটামুটি নিশ্চিত।

রোববার রাতে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানান, দল চূড়ান্ত হয়নি। মাঠে গিয়ে ঠিক করা হবে। তবে ১৩ জনের দল সাজানো হয়েছে। সেই ১৩ জনে নেই মিঠুন আর রাহী। তার মানে তাদের কোনো সম্ভাবনাই নেই।

তবে বাকি ১৩ জন থেকে কোন ১১ জন খেলবেন ম্যাচে? মিঠুনের জায়গায় কাকে খেলানো হবে? তা নিয়েই যত সংশয় আর দ্বিধা। একবার বাড়তি পেসার হিসেবে রুবেল হোসেনকে দলে নেয়ার কথা ভাবা হচ্ছে, পরক্ষণে চলে আসছে একজন ব্যাটসম্যান কমিয়ে না আবার বিপাকে পড়তে হয়।

ছয় ব্যাটসম্যান ও পাঁচ বোলার ফরমেট ঠিক থাকলে মিঠুনের বিকল্প হিসেবে রয়েছেন দুজন। লিটন দাস আর সাব্বির রহমান রুম্মন। নির্ভরযোগ্য মিডল অর্ডার হিসেবে সাব্বিরের দলে ঢোকার সম্ভাবনা রয়েছে। আবার সম্প্রতি পারফরম্যান্স বিবেচনায় লিটন দাস দলে আসার বেশি যোগ্যতা রাখেন।

শেষ পর্যন্ত রুবেল ঢুকলে ওই দুই ব্যাটসম্যান বাইরেই থাকবেন। আর বাড়তি মানে চার পেসার খেলানো না হলে লিটন আর সাব্বিরের যে কেউ অন্তর্ভুক্ত হবেন।

টিম ম্যানেজমেন্ট সূত্রে জানা গেছে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আজকের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ব্যাটসম্যান কমিয়ে বাড়তি একজন পেসার খেলানোর বিষয়টি জোরালো বিবেচনায় রেখেছে টিম ম্যানেজমেন্ট। সে ক্ষেত্রে জায়গা হারাবেন মিঠুন, তার জায়গায় রুবেল খেলবেন।

সকালে সিদ্ধান্ত বদল না হলে সবশেষ ম্যাচের একাদশ থেকে পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে এই একটিই।

দল সূত্রে জানা গেছে, ব্যাটসম্যান একজন কমানো নিয়ে দলীয় সভায় আলোচনা হয়েছে বিস্তর। ভেবে দেখা হয়েছে ঝুঁকির দিকটিও। ক্যারিবিয়ান পেসে যদি টপ অর্ডার ভেঙে পড়ে দ্রুত তা হলে ব্যাটসম্যানের কমতি ভোগাতে পারে দলকে, টিম ম্যানেজমেন্টের কেউ কেউ এ যুক্তি দিয়েছেন। তবে ছোট মাঠে একজন বাড়তি পেসারের প্রয়োজনীয়তাও অনুভব করছে দল। শেষ পর্যন্ত তাই আক্রমণাত্মক পথে আগানোর সিদ্ধান্তই হয়েছে ম্যাচের আগের দিন।

ব্যাটসম্যান না কমিয়ে কোনো স্পিনারকে কমিয়েও পেসার বাড়ানোর বিষয়টিও বিবেচনায় ছিল। সে ক্ষেত্রে মেহেদী হাসান মিরাজ কিংবা মোসাদ্দেকের কাউকে বাদ দেয়ার চিন্তা ছিল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মেহেদী হাসান মিরাজের পারফরম্যান্স অসাধারণ। তাদের ব্যাটিং অর্ডারের প্রথম পাঁচ ব্যাটসম্যানের চারজনই বাঁহাতি। অফ স্পিনার বাদ দেয়ার ভাবনা তাই বাদ হয়ে গেছে শুরুতেই। মাহমুদউল্লাহ যেহেতু বোলিং করার অবস্থায় নেই এখনও, অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেনকে বাইরে রাখার ভাবনাও বেশিদূর এগোয়নি। কারণ বিশ্বকাপে মোসাদ্দেক ব্যাটিংয়েও টেল এন্ডে ভালো করছেন।

পাঁচ ব্যাটসম্যান ও ছয় বোলার ফরম্যাট ঠিক থাকলে মিঠুনের পজিশনে আজ পাঁচ নম্বরে ব্যাট করবেন ছয়ে ব্যাট করা মাহমুদউল্লাহ। ছয় নম্বরে আসবেন মোসাদ্দেক। লোয়ার মিডল অর্ডারে বাড়তি দায়িত্ব নিতে হবে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মিরাজ ও অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজাকে।

নতুবা মাহমুদউল্লাহ আগের পজিশনেই খেলবেন। মিঠুনের জায়গায় সাব্বির কিংবা লিটন ব্যাট করবেন।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

তামিম ইকবাল

সৌম্য সরকার

সাকিব আল হাসান

মুশফিকুর রহিম

লিটন দাস/সাব্বির রহমান

মাহমুদউল্লাহ

মোসাদ্দেক হোসেন

মেহেদী হাসান মিরাজ

মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন

মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক)

মোস্তাফিজুর রহমান।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top
antalya escort bursa escort adana escort mersin escort mugla escort