টেকনাফে মাদকাসক্ত ছেলের আঘাতে পিতার মৃত্যু

hakim-ali.jpg

নিজস্ব প্রতিনিধি : মাদকাসক্ত ছেলের আঘাতে না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন টেকনাফ পৌরসভার ইসলামাবাদ এলাকার লন্ড্রী ব্যবসায়ী হাকিম আলি (৫৫)। ১৩ ই জুন রাত ১টার দিকে অসুস্থ্য হাকিম আলি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।
জানা যায়, গত ২২ এপ্রিল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত অবস্থায় মাদকাসক্ত ছেলে রহিমুস সাদেক(২২) মাদকের টাকার জন্য পিতার সাথে বাকবিতন্ডা শুরু করে। একপর্যায়ে পিতাকে ধাক্কা দিলে পিলারের সাথে মাথায় আঘাত লেগে রক্তাক্ত হন। এসময় পার্শ্ববর্তী ব্যবসায়ীরা আহত পিতাকে হাসপাতালে ভর্তী করেন। চিকিৎসা শেষে হাকিম আলি বাড়ী ফিরলে আর সুস্থ্য হতে পারেননি। মাথার আঘাতে অসুস্থতায় ভোগে শেষ পর্যন্ত না ফেরার দেশে পাড়ি জমান।

এদিকে পিতাকে আঘাতকারী ছেলেকে সেসময় পার্শবর্তী ব্যবসায়ীরা আটক করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের কাছে নিয়ে গেলে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ১বছরের সাজা প্রদান করে কারাগারে প্রেরন করেন।

উপজেলা কৃষকলীগ সভাপতি এবিএম আবুল হোসেন রাজু জানান, হাকিম আলি ছেলেকে একটি কম্পিউটার কিনে দিয়েছিলেন উপার্জনের জন্য। কিন্তু ছেলে প্রায় মাদকের টাকার জন্য পিতাকে অত্যাচার করতেন। শেষে মাদকাসক্তির কারনে ছেলের হাতে প্রাণ হারাতে হলে পিতাকে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, হাকিম আলি একজন পুরাতন রোহিঙ্গা। স্ত্রী মারা যাওয়ার পর ২ ছেলে ৩ মেয়ে নিয়ে পুরাতন পল্লান পাড়া এলাকায় বসবাস করতেন।