উখিয়ায় ছিনতাই হওয়া ডাম্পার গাড়ি ১মাসেও উদ্ধার হয়নি

Pic-Ukhiay-30-05-19.jpg

ফারুক আহমদ : উখিয়ার হাতির ঘোনা থেকে প্রকাশ্যে সন্ত্রাসী কায়দায় ছিনতাই হওয়া ডাম্পার গাড়িটি ১ মাসের অধিক সময় পার হলেও এখনো উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। তবে ছিনতাই হওয়া ডাম্পারটি রং পরিবর্তন করে বিক্রি করতে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে।
থানায় দায়েরকৃত এজাহার সূত্রে জানা গেছে, রত্মাপালং ইউনিয়নের ভালুকিয়া উত্তর পাড়া গ্রামের সমিরন বড়ুয়া স্ত্রী লিয়া বড়ুয়া প্রকাশ টিম্পার মালিকানাধীন ডাম্পারটি (কক্সবাজার ড-১১-৩৮১) ড্রাইভার ছিল হলদিয়া পালং ইউনিয়নের হাতির ঘোনা গ্রামের মৃত লচু বড়ুয়া পুত্র সুজিত বড়ুয়া।
প্রতিনিদিনের ন্যায় মালামাল পরিবহন শেষে ডাম্পারটি ড্রাইভার সুজিত বড়–য়ার বাড়িতে রাখে। গত ২৭ এপ্রিল একদল চিহ্নিত সন্ত্রাসী দিবালোকে ড্রাইভারের উঠান হতে উক্ত ডাম্পারটি ছিনতাই করে নিয়ে যায়। এ সময় স্ত্রী রিকু বড়ুয়া বাধাঁ দেওয়ার চেষ্টা করলে তাকেও মারধর ও শীলতাহানী করা হয়।
এদিকে ছিনতাই হওয়া ডাম্পারটি সন্ত্রাসীদের কবল থেকে উদ্ধার করার জন্য গাড়ির মালিক লিয়া বড়ুয়া প্রকাশ টিম্পা বাদী হয়ে উখিয়া থানায় লিখিত ভাবে এজাহার দায়ের করে। এ ঘটনায় পরিতোষ বড়ুয়া, অনিত্য বড়ুয়া, দানু বড়ুয়া, প্রেবিন বড়ুয়া, ডালিম বড়ুয়া সহ ১০ জনকে আসমী করা হয়।
থানা সূত্রে জানা যায়, আভিযোগের ভিত্তিতে উখিয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ছিনতাই হওয়া ডাম্পারটি উদ্ধার করার জন্য ইতি মধ্যে অভিযান পরিচালনা করেছে।
এ প্রসঙ্গে জানাতে চাইলে, তদন্তকারী অফিসার উপ-পুলিশ পরিদর্শক মো: মহিউদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ভালুকিয়া আমতলী লম্বাঘোনা গ্রামে ডাম্পারটি সন্ধান পাওয়া গেলে সে খানে গিয়ে আমরা তা সনাক্ত করি। পরে গাড়িটি যাদের বাড়িতে পাওয়া গেছে তাকেই জিম্মা দেওয়া হয়। শুনা যাচ্ছে ওখানে গাড়িটি নেই। কেউ বলছে চুরি হয়ে গেছে।
এদিকে গাড়ির মালিক লিয়া বড়ুয়া প্রকাশ টিম্পা অভিযোগ করে বলেন, ১ মাসের অধিক সময় পার হলেও গাড়িটি উদ্ধার করতে পারেনি। ডাম্পারটি রং পরিবর্তন করে সুকৌশলে বিক্রি করার অপচেষ্টা করা হচ্ছে। অবিলম্বে গাড়িটি উদ্ধারের জন্য পুলিশের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।