বাহারছড়ায় যৌতুকের দাবীতে গৃহবধুকে নির্যাতনের অভিযোগ

ovijog13.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক :

টেকনাফ বাহারছড়া উত্তরশীলখালীতে যৌতুকের দাবীতে গর্ববতী এক গৃহবধুকে অমানষিক নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গৃহবধুর পিতা মোঃ লালু অভিযোগ করেন বাহারছড়া উত্তর শীলখালী গ্রামের হাবীব উল্লাহ পূত্র মোঃ ঈসমাইলের সাথে আমার মেয়ের বিয়ের কয়েক মাস পর থেকেই যৌতুকের দাবীতে বিভিন্ন সময় নির্যাতন করতে থাকে। তার ধারাবাহিকতায় গত ২০ মে সন্ধ্যা ইফতারের পর যৌতুকের কথা বলে আমার গর্ববতী মেয়েকে জামাতা ঈসমাইল, মা রহিমা খাতুন ও বাবা হাবীব উল্লাহ মিলে অমানষিক নির্যাতন করে। এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে ক্ষত ও কালো দাগ করে পেলে। পরে আমার স্ত্রী খবর পেয়ে মেয়েকে দেখতে গেলে জামাতা ঈসমাইল তাকেও ব্যাপক মারধর করে। শেষে আমরা নিরুপায় হয়ে স্থানীয় বাহারছড়া পুলিশ ফাঁড়িতে একটি অভিযোগ করি। পরে পুলিশ গিয়ে মেয়েকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে। আর আহত অবস্থায় আমরা তাকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করি। বর্তমানেও মেয়ের শরীরের অবস্থা খুবই খারাপ। আমি আমার মেয়ের নির্যাতনের সুষ্ট বিচার চাই। যৌতুক লোভী ঈসমাইল ও তার পিতা মাতাকে আইনের আওতায় এনে শাস্তি দেওয়ার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করি। এব্যাপারে বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপসহকারী পরিদর্শক মোঃ জহির আলম বলেন এক গৃহবধুকে যৌতুকের দাবীতে নির্যাতনের অভিযোগ পেয়ে আমার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করি। তবে সেখানে কাউকে আটক করা যায়নি।