porno porn
izmir rus escortlar
porno izle sex hikaye
corum surucu kursu malatya reklam

মিয়ানমার কেন্দ্রস্থলে সৃষ্ট ভূমিকম্পে কাঁপল পার্বত্য চট্টগ্রামসহ দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চল

earth-myanmar-20190415115441.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : পার্বত্য চট্টগ্রাম ও দেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। একই সঙ্গে ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে ভারত ও মিয়ানমারের বিভিন্ন অঞ্চল থেকেও। ভূমিকম্পের ফলে কেঁপে ওঠে চট্টগ্রাম-বান্দরবানসহ দেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের পাহাড়ি জনপদ।

আজ সোমবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টা ৩৯ মিনিটে এ ভূমিকম্প অনুভূত হয়।

ইউএস জিওলজিক্যাল সার্ভে (ইউএসজিএস) জানিয়েছে, রিখটার স্কেলে এ ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৪ দশমিক ৭। এর উৎপত্তিস্থল ছিল ভারতের সীমান্ত-সংলগ্ন মিয়ানমারের ভূখণ্ডে সমতলের ৫২.৭ কিলোমিটার গভীরে।

তবে ভূমিকম্পে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।

ভূ-বিজ্ঞানীদের মতে, পৃথিবী প্লেট ও সাব-প্লেট দিয়ে গঠিত। এ রকম দু’টি প্লেটের মাঝখানে যে ফাঁক থাকে তাকে বলা হয় ফল্ট লাইন। প্লেটগুলো গতিশীল। দু’টি চলন্ত প্লেটের ফল্ট লাইনে পরস্পর সংঘর্ষ হলে অথবা হঠাৎ ফল্ট লাইনে শূন্য অবস্থার সৃষ্টি হলে ভূমিকম্প হয়। বাংলাদেশ অবস্থান করছে ভারতীয়, ইউরেশীয় ও মিয়ানমারের টেকটনিক প্লেটের মধ্যে।

বুয়েটের গবেষকদের ভূমিকম্প ঝুঁকির মানচিত্রে দেখা যায়, বাংলাদেশের ৪৩ শতাংশ এলাকা ভূমিকম্পের উচ্চমাত্রার ঝুঁকিতে (জোন-১), ৪১ শতাংশ এলাকা মধ্যম (জোন-২) ও ১৬ শতাংশ এলাকা নিম্ন ঝুঁকিতে (জোন-৩) রয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top
canlı bahis canlı poker canlı casino canlı casino canlı casino canlı casino oyna canlı casino