কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুগ্রুপের সংঘর্ষ: আটক-১৩

rohingya_refugee_food_crisis_57494_1504991442.jpg

কায়সার হামিদ মানিক : উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প কুতুপালং ৬ নং ক্যাম্পে শনিবার রাত ১১ টা থেকে দিবাগত রাত আড়াইটা পর্যন্ত দু’গ্রুপের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ব্যাপক সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে।খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে রোহিঙ্গাদের ধাওয়া করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। এখনো রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ক্যাম্পের ভুট্টো-ইউনুছ ও নবী হোছন গ্রুপের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
রোহিঙ্গারা জড়ো হয়ে দু’পক্ষ মারমুখী অবস্থান নিয়ে ক্যাম্প ইনচার্জ রেজাউল করিমের অফিসে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে বলে জানা গেছে।
ঘটনার খবর পেয়ে উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবুল খায়েরের নেতৃত্বে সাড়াশি অভিযান চালিয়ে ১৩ জন রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করেছে বলে ওই কর্মকর্তা জানিয়েছেন। গ্রেপ্তারকৃতদের রোববার দুপুরে কক্সবাজার জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন মোঃ ইসমাঈল (২৩), মোঃ হোছন (৩০) মোঃ আলম (১৯), মোঃ জুনাইদ (৩৫), ভুট্টো আলম (৫০), মোঃ ইউনুছ (১৮) মোঃ রফিক (১৮) মোঃ আমিন (১৯) আয়ার মোহাম্মদ (৩৫) মোহাম্মদ জাফর আলম (২২) শামশুল আলম (২০) দিল মোহাম্মদ (৩৫) ও এনায়েত উল্লাহ (৩৫)।
এব্যাপারে কুতুপালং ক্যাম্প ইনচার্জ রেজাউল করিমের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, রোহিঙ্গারা এক শ্রেণির আত্মঘাতি জাতি। তারা দেশের আইন কানুন কিছুই তোয়াক্কা করে না।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top