(ফলোআপ) উখিয়ায় মাটি চাপায় নিহত যুবকের দাফন সম্পন্ন : ডাম্পার জব্দ পৃথক ৩টি মামলা দায়ের

young.jpg

ফারুক আহমদ : উখিয়ার হলদিয়াপালং বনবিভাগের পাহড়ের মাটি অবৈধভাবে কাটার সময় মাটি চাপা পড়ে নিহত মোহাম্মদ কালু (১৩) নামক এক শ্রমিকের লাশ ময়না তদন্ত সম্পন্ন করে রবিবার (১০ ফেব্রুয়ারী) সন্ধ্যায় নিজ গ্রামে দাফন করা হয়েছে। নিহত শিশু শ্রমিক হলদিয়াপালং ইউনিয়নের দক্ষিণ মৌলভী পাড়া গ্রামের মৃত মখলেছুরজ্জামান প্রকাশ মখলুর পুত্র বলে জানা গেছে। উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো: আবুল খায়ের জানান, এ ব্যাপারে হত্যা ও পরিবেশ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। হলদিয়া পালং বিট কর্মকর্তা মো: মহিউদ্দিন বলেন, সরকারী পাহাড় অবৈধ ভাবে কাটার সময় মাটি চাপা পড়ে নিহতের ঘটনায় গাড়ির মালিক ও মাটি খেকো সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে পৃথক ৩টি মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে।

অভিযোগে প্রকাশ হলদিয়াপালং ইউনিয়নের দক্ষিণ মৌলভী পাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল হাকিমের পুত্র বাহাদুর মিয়া, বেদার ও ফিরোজের নেতৃত্বে একটি মাটি খেকো সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন ধরে সরকারী পি.এফ পাহাড়ের মাটি অবৈধ ভাবে কর্তন করে ডাম্পার যোগে বিভিন্ন জায়গায় সরবরাহ করে আসছিল।
স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, প্রতিদিন ডাম্পার নিয়ে একদল শ্রমিক সরকারি পাহাড় কেঁটে মাটি পরিবহন করে আসছিল। গত শনিবার প্রতিদিনের ন্যায় চট্টমেট্রো-ড ১১-৭৫০৯ নম্বরের ডাম্পার নিয়ে শ্রমিকরা এসে মাটি কেঁটে ডাম্পারের ভর্তি করার সময় মাটিতে চাপা পড়ে কয়েকজন শ্রমিক। তৎ মধ্যে জনগণ মোহাম্মদ কালু শিশু শ্রমিককে উদ্ধার করে কোর্টবাজার একটি ক্লিনিকে আনা হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
প্রত্যেক্ষদর্শীরা আরও জানান, এখনো মাটি চাপা পড়ে শ্রমিক মার্সাল সহ ৪ শ্রমিক আহত হয়।

এদিকে মাটি চাপা পড়ে হতাহতের ঘটনায় জড়িতরা গ্রেফতার এড়াতে এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে। ঘটনাস্থল থেকে মাটি পরিবহনে ব্যবহৃত চট্টমেট্রো-ড ১১-৭৫০৯ নম্বরের ডাম্পারটি পুলিশ জদ্ধ করেছে। খোঁজখবর নিয়ে জানা যায়, হলদিয়াপালং বনবিট এলাকায় সাবেক রুমখাঁ ক্লাশ পাড়া নামক স্থানে পাহাড় কাঁটার সময় গেল বছর বদিউল আলমের ছেলে ঘটনাস্থলে নিহত হয়েছিল।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top