নির্বাচনের দিন যেসব ক্ষেত্রে গাড়ি চলাচল করতে পারবে

election-345678.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক |

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অধিকাংশ ক্ষেত্রে যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলেও বিশেষ কিছু ক্ষেত্রে শিথিল করার কথা বলা হয়েছে।

নির্বাচনের আগের দিন শনিবার মধ্যরাত থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় বেশ কিছু যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনের দিন মধ্যরাত পর্যন্ত এ বিধিনিষেধ বহাল থাকবে।

এসব যানবাহনের মধ্যে রয়েছে- বেবি টেক্সি, অটোরিকশা, ইজিবাইক, পিকআপ, টেম্পো, ট্যাক্সিক্যাব, কার, স্থানীয় পর্যায়ের বিভিন্ন যন্ত্রচালিত যানবাহন, মাইক্রোবাস, বাস, জিপ ও ট্রাক।

একই সঙ্গে লঞ্চ, ইঞ্জিনচালিত সব ধরনের নৌযান ও স্পিডবোটের চলাচলে নিষেধাজ্ঞা থাকবে। তবে ইঞ্জিনচালিত ক্ষুদ্র নৌযান বা জনগণ তথা ভোটারদের চলাচলে ব্যবহৃত ক্ষুদ্র নৌযান এ বিধিনিষেধের বাইরে থাকবে।

এ ছাড়া আজ শুক্রবার মধ্যরাত থেকে আগামী বছরের ১ জানুয়ারি মধ্যরাত পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচল করতে পারবে না।

কেবল নির্বাচন কমিশনের সাংবাদিক লেখা স্টিকারযুক্ত মোটরসাইকেলের ক্ষেত্রে এ নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না।

তবে রিটার্নিং অফিসারের অনুমতি সাপেক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী, তাদের নির্বাচনী অ্যাজেন্ট, দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষকের ক্ষেত্রে এসব নিষেধাজ্ঞা শিথিল করা যাবে। সে ক্ষেত্রে তাদের কাছে পরিচয়পত্র থাকতে হবে।

এ ছাড়া নির্বাচনের সংবাদ সংগ্রহের কাজে নিয়োজিত দেশি-বিদেশি সাংবাদিক, নির্বাচনী কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারী, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, নির্বাচনের বৈধ পরিদর্শকের ক্ষেত্রে এ বিধিনিষেধ কার্যকর হবে না।

অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ, গ্যাস ডাক, টেলিযোগাযোগ, সংবাদপত্র বহনকারী, বিমানবন্দর যাত্রী পরিবহনও নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে।

জাতীয় মহাসড়ক, বন্দর, জরুরি পণ্য সরবরাহসহ অন্যান্য জরুরি প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এমন নিষেধাজ্ঞা শিথিলের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Top