খুব শীঘ্রই স্মার্টকার্ড পাবে টেকনাফবাসী

20180811_115249.jpg

টেকনাফ উপজেলা নির্বাচন অফিস পরিদর্শন কালে কমিশন সচিব “হেলাল উদ্দিন”
গিয়াস উদ্দিন ভুলু, টেকনাফ :
গতকাল ১১আগষ্ট শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় টেকনাফ নির্বাচন অফিস পরিদর্শন করলেন বাংলাদেশ জাতীয় নির্বাচন কমিশন সচিব হেলাল উদ্দিন। তথ্য সুত্রে জানা যায়, শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় আগত অতিথিদের বরন করতে টেকনাফ নির্বাচন অফিস কর্মকর্তা মোঃ বেদারুল ইসলাম সহযোগীদেরকে সাথে নিয়ে আগত অতিথিদের বরন করে নিতে বিশাল এক প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়। সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আগত অতিথিদের বরন করতে নির্বাচন অফিসকে বিয়ে বাড়ীর মত করে সাজিয়ে রাখা হয়। এরপর অতিথিরা টেকনাফ নির্ববাচন অফিসে পৌছলে লাল গালিছা অজস্র ফুল দিয়ে বরন করে নেওয়া হয়। অফিস পরিদর্শন শেষে আগত অতিথিরা টেকনাফ নির্বাচন অফিসের দায়িত্বরত কর্মকর্তা কর্মচারীদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হয়।
উক্ত সভায় জাতীয় নির্বাচন কমিশন সচিব হেলাল উদ্দীন বলেন, মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা যেন কোন কিছুতেই জাতীয় ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হতে না পারে।
সেই দিকটা কঠোর ভাবে পর্যবেক্ষন করার আহবান জানান কক্সবাজার জেলা /উপজেলার দায়িত্বরত কর্মকর্তাদের প্রতি।
তিনি আরো বলেন ইতিমধ্যে আমরা ঢাকা,চট্রগ্রামসহ বেশ কয়েকটি জেলা ও পৌরসভায় জাতীয় স্মার্টকার্ড বিতরন করেছি। সেই প্রক্রিয়াটি এখনো অব্যাহত রয়েছে। পাশাপাশি খুব শীঘ্রই আমরা টেকনাফ উপজেলার ভোটারদের মাঝেও জাতীয় স্মার্টকার্ড বিতরন প্রক্রিয়া শুরু করবো।
টেকনাফে দায়িত্বরত কর্মকর্তাদের প্রতি উর্দ্দেশ্য করে তিনি বলেন, জাতীয় নির্বাচন কমিশনের নিয়ম-নীতি ও আইন-কানুন মেনে অত্র এলাকার ভোটারদেরকে গ্রহন যোগ্য সেবা প্রদান করার আহবান জানান। নির্বাচন অফিসে এসে কোন ভোটার যেন হয়রানির শিকার না হয় সে দিকেও নজর রাখতে হবে।
এই সময় উপস্থিত ছিলেন, চট্রগ্রাম বিভাগীয় নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ হাসানুজ্জামান, কক্সবাজার জেলার ভারপ্রাপ্ত নির্বাচন কর্মকর্তা শীমুল শর্মা,টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার রবিউল হাসান,টেকনাফ মডেল থানার (ওসি) বাবু রনজিত কুমার বড়ুয়াসহ কক্সবাজার জেলা /উপজেলা থেকে আগত নির্বাচন অফিসের কর্তব্যরত কর্মকর্তা ও কর্মচারিরা।