টেকনাফে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বসত বাড়িতে অগ্নিসংযোগ

Teknaf-picfire_10.08.jpg

শামসু উদ্দিন, টেকনাফ :
টেকনাফে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বসত বাড়িতে অগ্নিসংযোগের অভিযোগ উঠেছে। অগ্নিকান্ডে সম্পূর্ণ বাড়িটি ভস্মিভুত হওয়ার আগেই টেকনাফ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মীরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ৯ আগস্ট বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের নাজির পাড়া এলাকায় সিদ্দিকের বাড়িতে অগ্নিসংযোগের এ ঘটনা ঘটে। এতে ২০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়েছে বলে জানিয়েছে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার। এঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে সিদ্দিক আহমদের ভাই জালাল আহমদ বাদী হয়ে ৬ জনের বিরুদ্ধে টেকনাফ থানায় লিখিত এজাহার দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, টেকনাফ নাজির পাড়ার সিদ্দিক আহমদের পরিবার প্রতিপক্ষের সাথে মামলা মোকদ্দমাসহ শত্রুতার কারণে বর্তমানে নাজির পাড়া এলাকার বাড়িতে বসবাস করতে না পারায় স্বপরিবারে টেকনাফ পৌরসভার অলিয়াবাদ এলাকায় বসবাস করে আসছিলেন। নাজির পাড়ার সেমিপাকা বাড়িটিতে তার এক নিকটাত্মীয়কে পাহাড়াদার হিসাবে নিযুক্ত করেন। ঘটনার দিন বৃহস্পতিবার প্রতিপক্ষের সাথে আদালতে মামলার ধার্য তারিখ ছিল। এতে প্রতিপক্ষ সিদ্দিক আহমদ সহ অন্যান্যদের জামিন বাতিল করে কারাগারে প্রেরন করতে আদালতের নিকট আর্জি জানায়। কিন্তু আদালত জামিন বহাল রাখায় ক্ষিপ্ত হয়ে শাহাব উদ্দিন সাফু আদালতের বাহিরে এসে সিদ্দিক আহমদ সহ অন্যান্যদের দেখে নেওয়ার হুমকি দেয় এবং একপর্যায়ে রাতের বেলা সিদ্দিক আহমদের বসতবাড়িতে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এঘটনায় টেকনাফ সদর ইউনিয়নের নাজির পাড়া এলাকার মৃত মোজাহার মিয়ার পুত্র শাহাব উদ্দিন সাফু(৩৫) নুরুল হক(৩০), এনামুল হক(২৭), চান মিয়া(৪০), মৃত ফজল আহমদের ছেলে দিল মোহাম্মদ প্রকাশ কালু (৫৫), দিল মোহাম্মদের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম(২২) কে আসামী করে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এসময় স্বশস্ত্র অবস্থায় থাকা অভিযুক্তরা পাহাড়াদারকে ভয়ভীতি দেখিয়ে তৈল ছিটিয়ে ঘরে আগুন দেয় বলে অভিযোগ করেন বাদী।
টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রনজিত কুমার বড়–য়া অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বাড়িটিতে কেউ ছিলনা তবে কিভাবে আগুন লেগেছে তা বের করতে পুলিশ অনুসন্ধান চালাচ্ছে। তদন্ত সাপেক্ষে এব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।