রোহিঙ্গা ও অদক্ষ চালকদের কারনে টেকনাফে সড়ক নিরাপদ নই শিক্ষার্থীদের জন্য

38693266_2174876306096141_5041642592995901440_n.jpg

নিজস্ব প্রতিনিধি, টেকনাফ টুডে ডটকম :
টেকনাফে এক বেপরোয়া রোহিঙ্গা চালকের অটো রিক্সায় পিষ্ট হয়ে গুরুত্বর আহত হয়েছে মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেনীর ছাত্র মোহাম্মদ(৫)। বুধবার ৮ আগস্ট সকাল ১১টার দিকে পৌরসভার ডেইল পাড়া এলাকায় এ দূর্ঘটনা ঘটে। এতে আহত মোহাম্মদের ডান পায়ের হাড় ভেঙ্গে যায়। এসময় আশেপাশে উপস্থিত টেকনাফ কলেজের কয়েকজন ছাত্র তাকে দ্রুত উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক কক্সবাজারে প্রেরন করেন। সে ডেইল পাড়া এলাকার মো. ইয়াকুবের ছেলে।

টেকনাফ মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সাইফুল ইসলাম জানান, বুধবার শিশু শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের ২য় সাময়িকের ইংরেজী পরীক্ষা ছিল। ওই ছাত্র পরীক্ষা শেষে বোনের সাথে বাড়ি ফেরার পথে এ দূর্ঘটনা ঘটে। একটি দ্রুত গামী অটো রিক্সা শিশুটিকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়।

অটোরিক্সার চালক রোহিঙ্গা ছিল বলে জানিয়েছে প্রত্যক্ষদর্শীরা।

এসময় টেকনাফ ডিগ্রী কলেজের কয়েকজন ছাত্রসহ আশেপাশের লোকজন অটোরিক্সাটি আটক করে।

এদিকে শিশুর পিতার আর্থিক অস্বচ্ছলতার খবর পেয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষক, অভিভাবক ও ডিগ্রী কলেজের কিছু শিক্ষার্থী চিকিৎসার জন্য অর্থ সহায়তা প্রদান করেন।

কয়েকদিন আগে ঢাকায় বাস চাপায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় নিরাপদ সড়কের দাবীতে দেশব্যাপী শিক্ষার্থীদের উত্তাল আন্দোলনের রেশ কাটতে না কাটতে টেকনাফে এক শিশু শিক্ষার্থী আহত হওয়ায় অভিভাবক-শিক্ষার্থীসহ অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

টেকনাফ ডিগ্রী কলেজের ছাত্রী রাবেয়া সুলতানা টেকনাফ টুডে ডটকমকে জানান, সারাদেশে নিরাপদ সড়কের দাবীতে আন্দোলন হলেও টেকনাফে এর কোন প্রভাব পড়েনি। ফলে ট্রাফিক সপ্তাহ চললেও টেকনাফে রোহিঙ্গা ও লাইসেন্সবিহীন চালক, ফিটনেসবিহীন যানবাহনের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিতে দেখা যায়নি। একারণে শিক্ষার্থী সহ সকলে সড়কে এখনো অনিরাপদ বোধ করছি। অবিলম্বে এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নিতে প্রশাসনের প্রতি জোড় দাবী জানান তিনি।