‘কোটা সংস্কার চাই’ ফেসবুক গ্রুপটি তারেক রহমানের নির্দেশে তৈরি করে সাইবার ফোর্স!

tarique.jpg

ডেস্ক নিউজ : কোটা সংস্কার আন্দোলনকে উপলক্ষ করে তৈরি করা ‘কোটা সংস্কার চাই’ নামের ফেসবুকভিত্তিক গ্রুপটি ভিন্নউদ্দেশ্য নিয়ে খোলা হয়। যার নেপথ্যে বিএনপির সাইবার ফোর্সের সংশ্লিষ্টতার পুরোপুরি প্রমাণ মিলেছে। জানা গেছে, গ্রুপটির ক্রিয়টর হিসেবে ‘জিয়া সাইবার ফোর্স’ দ্বারা পরিচালিত ‘জনতার কণ্ঠ’- এর নাম পাওয়া গেছে।

সূত্র বলছে, ‘জনতার কণ্ঠ’ নামের ওই পেজটিতে প্রায় ত্রিশ লক্ষ মেম্বার রয়েছে। আর সেই শক্তিকে ভিন্নভাবে কাজে লাগিয়ে রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে তারেক রহমানের নির্দেশে ‘কোটা সংস্কার চাই’ নামের গ্রুপটি খোলা হয়। সরকারি চাকরিতে নিয়োগের ক্ষেত্রে বিদ্যমান কোটা পদ্ধতির বিরোধীতা করে গড়ে তোলা এই গ্রুপ থেকেই আন্দোলনে সবধরণের দিকনির্দেশনা দেয়া হয় বলেও জানা যায়।

‘জনতার কণ্ঠ’পেজটি পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, সেখানে বরাবরই সরকার বিরোধী প্রচারণা চালানো হয়। বিভিন্ন ধরণের গুজব, সরকারের বিরুদ্ধে উস্কানী আর ভুলে ভরা ইতিহাস প্রচারের উদ্দেশ্যে কাজ করছে ফেসবুক পেজটি। আর পেজটি পরিচালিত হয় বিএনপির প্রশিক্ষিত সাইবার কর্মীদের দ্বারা, যারা তারেক রহমানের একান্ত আস্থাভাজন।

আন্দোলনের শুরুর দিকে অনেকে কোটা বিরোধী আন্দোলনকে বিএনপি তথা তারেক রহমানের অর্থায়নে পরিচালিত হচ্ছে বলে অভিযোগ করে এসেছেন। ‘কোটা সংস্কার চাই’ গ্রুপের ক্রিয়েটর হিসেবে বিএনপির সাইবার কর্মীদের নাম আসায় এখন কোটা বিরোধী আন্দোলনে বিএনপির অর্থায়নের অভিযোগের বিষয়টি সত্য বলে প্রমাণ হলো।

প্রসঙ্গত, কোটা সংস্কার আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে তারেক রহমান এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মামুনের ফোনালাপ ফাঁস হলে কোটা আন্দোলনের নেপথ্যে বিএনপির ভূমিকা স্পষ্ট হয়ে যায়। এবার ‘কোটা সংস্কার চাই’ গ্রুপটির ক্রিয়েটর বিএনপি সমর্থিত সাইবার কর্মী- এই তথ্য প্রকাশ পাওয়ায় সেই রহস্য সকলের মাঝে পুরোপুরি উন্মোচিত হলো।