বিএনপির মিছিল থেকে হামলা চালিয়ে আটক কর্মী ‘ছিনতাই’

image-12832-1517316653.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক :
বিএনপির মিছিল থেকে পুলিশের ওপর হামলা, ভাঙচুর ও প্রিজনভ্যান থেকে আটক কর্মী ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার বিকাল পৌনে ৪টার দিকে রাজধানীর হাইকোর্টের কদম ফোয়ারার মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ দাবি করেছে, বিকালে বিএনপির নেতাকর্মীরা মিছিল থেকে অতর্কিতে হামলা চালায়। প্রিজনভ্যান ভাঙচুর করে বিএনপির আটক দুই কর্মীকে ছিনিয়ে নেয়, পুলিশের রাইফেল ভেঙে ফেলে। এতে পুলিশের রমনা বিভাগের উপকমিশনারসহ কয়েকজন আহত হন।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া মঙ্গলবার বকশীবাজারে স্থাপিত বিশেষ আদালতে হাজিরা দিয়ে ফিরছিলেন। দলের চেয়ারপারসনের আদালতে হাজিরার দিন প্রতিবারের মতো আজও নেতাকর্মীরা হাইকোর্ট মাজার গেটে জড়ো হয়। পরে বকশীবাজার থেকে বিএনপির আরেকটি মিছিল এতে যোগ দেয়।

পুলিশ দাবি করে, খালেদা জিয়া ফেরার সময় মিছিল থেকে পুলিশের দিকে ইটপাটকেল ছোড়া হয়। এতে রমনা বিভাগের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) আজমের হাতের আঙুল ফেটে যায়। কয়েকজন পুলিশ আহত হয়। তাদের হেলমেট ও রাইফেল ক্ষতিগ্রস্ত হয়। কদম ফোয়ারার সামনে পুলিশের একটি প্রিজনভ্যান ছিল। মিছিল থেকে কর্মীরা এসে ভ্যান ভাঙচুর করে এতে আটক থাকা দুই কর্মীকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। সেই সঙ্গে দুই পুলিশের রাইফেল কেড়ে নিয়ে ভেঙে ফেলে।

রমনা বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) মারুফ হোসেন সরদার বলেন, প্রতিবারের মতো খালেদা জিয়ার মিছিল পুলিশ সব সময় খুব ধৈর্যের সঙ্গে সামাল দেয়। আজও পুলিশ ধৈর্য ধরেছিল। কিন্তু বিনা উসকানিতে মিছিল থেকে পুলিশের ওপর হামলা করা হয়। এতে অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) আজমসহ কয়েকজন পুলিশ আহত হন।

এ বিষয়ে পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, ছিনিয়ে নেওয়া দুজনকে ঘটনার কিছু আগে হাইকোর্টের সামনে বিএনপির জমায়েত থেকে আটক করা হয়েছিল।