চকরিয়া সরকারি হাসপাতালের সিড়িঁর নীচে ভবঘুরে ব্যক্তির লাশ

las_uddhar_2.jpg

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া : চকরিয়া উপজেলা সরকারি হাসপাতালের সিঁিড়র নীচ থেকে হায়দার আলী (৭০) নামের এক ভবঘুরে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে হাসপাতালের নীচ তলা সিড়ি সামনে থেকে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করেন। নিহত হায়দার আলী চকরিয়া পৌরসভা ৮নম্বর ওয়ার্ডের কোচপাড়াস্থ বিদ্যুৎ অফিস সংলগ্ন মৃত আবু ছিদ্দিকের ছেলে। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, চকরিয়া উপজেলা হাসপাতালের নীচ তলা সিড়ির সামনে শনিবার দিবাগত রাতে অজ্ঞাত পরিচয়ে বৃদ্ধ ব্যক্তিল লাশ পড়ে থাকতে দেখে হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরে থানার ওসি তদন্ত মো.মিজানুর রহমান ও এসআই গৌতম সরকার ঘটনাস্থলে পৌছে লাশটি উদ্ধার করে। এরপর লাশ উদ্ধারের খবর ফেইসবুক ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় ও নিহতের বোন আনোয়ারা বেগম হাসপাতালে এসে লাশটি সনাক্ত করেন।
নিহতের বোন আনোয়ারা বেগম জানান, গত ২৪জানুয়ারী বুধবার থেকে চার দিন ধরে তার ভাই নিখোঁজ রয়েছে। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও তাকে পাওয়া যায়নি। শনিবার রাতে চকরিয়া সরকারী হাসপাতালের সিড়ির সামনে থেকে তার লাশটি পুলিশ উদ্ধার করেন। তিনি জানান, হায়দার আলী দীর্ঘদিন ধরে ভবঘুরে ও মানসিক প্রতিবন্ধি। চোখেও ভাল ভাবে দেখেনা। চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, উপজেলা হাসপাতালের সামনে থেকে পুলিশ হায়দার নামের ওই বৃদ্ধ পাগলের লাশ উদ্ধার করেছে। পরিবারের ভাষ্যমতে সে দীর্ঘদিন ধরে মানষিকভাবে ভারসাম্যহীন অবস্থায় ছিল।
ওসি বলেন,ধারণা করা হচ্ছে রাস্তার মধ্যে গাড়ী দূর্ঘটনায় আহত পড়ে থাকতে দেখে হয়ত পথচারীরা তাকে হাসপাতালে রেখে চলে যান। নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তবে পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় লাশটি সনাক্তের পর পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। #