টেকনাফ লম্বরী মলকাবানু উচ্চ বিদ্যালয়ে বিদায় ও বরণ অনুষ্ঠান

28.01.2018-ssc.jpg

রাশেদ মাহমুদ রাশেল, টেকনাফ ॥

টেকনাফে লম্বরী মলকাবানু উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসি পরিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা, নবীন বরণ ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান- ২০১৮ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২৮ জানুয়ারি রবিবার সকাল ১০টায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ ইসমাইলের সভাপতিত্বে ও সহকারি শিক্ষক এইচ এম আমিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টেকনাফ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাফর আহমদ।

বিশেষ অতিথি ছিলেন, টেকনাফ পৌর মেয়র হাজী মোঃ ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদ হোসেন ছিদ্দীকি, আওয়ামীলীগ নেতা এমএ জহির, একাডেমিক সুপার ভাইজার নুরুল আবছার।

প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, টেকনাফ সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহজাহান মিয়া মার্শাল।

বক্তব্য রাখেন, আহমদ হোসেন মেম্বার, শাহ আলম মেম্বার, আবদুর রহমান বাহার, সরওয়ার আলম, ১০ম শ্রেনীর ছাত্র মোঃ সাকিব।

বিদায়ীদের উদ্দেশ্যে মানপত্র পাঠ করেন ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী সুফিয়া কামাল প্রমুখ।

সভায় প্রধান অতিথি বলেন, শিক্ষা দীক্ষায় অনগ্রসর টেকনাফের প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে শিক্ষার বিকাশ ঘটাতে বর্তমান সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির আন্তরিকতা ও অনুদানে তাঁর মা’র নামে ১৯৯৪ ইং সনে মলকাবানু উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন। সেই থেকে আজ অবধি অত্র বিদ্যালয়ের অনেক শিক্ষার্থী বিভিন্ন সেক্টরে সু-শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে সমাজ ও দেশের কল্যানে অবদান রেখে যাচ্ছে। এই বিদ্যালয়ের সুনাম অক্ষুন্ন রাখতে আজকের বিদায়ী শিক্ষার্থীদেরও ভাল আচরণ ও ভাল শিক্ষার দিকে অগ্রসর হতে হবে। তবেই স্বার্থক হবে বিদ্যালয়সহ অত্র এলাকার অভিভাবকবৃন্দরা। তিনি সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানকে উদ্দেশ্য করে বলেন, এই স্কুলকে প্রতিষ্ঠা করতে অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে। বিদ্যালয়টি আগামীতে কলেজে উন্নীত হতে পারে সেই চেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে। তবে এলাকাবাসীর স্বপ্ন পূর্ণ হবে। তিনি ভাল লেখাপড়ার মাধ্যমে দেশ ও সমাজে ভুমিকা রাখার আহবান জানান এবং বিদায়ী শিক্ষার্থীদের উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করেন।

এর আগে স্কুলের শিক্ষার্থীরা নবীনদের বরণ এবং এসএসসি পরিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বিদায় জানান।
পরে বার্ষিক ক্রিড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।

উল্লেখ্য যে, মলকাবানু উচ্চ বিদ্যালয় থেকে আগামী ১ লা ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ইং অনুষ্ঠিত এসএসসি পরিক্ষায় ৮৯ জন পরিক্ষার্থী অংশ গ্রহন করবেন। এরমধ্যে নিয়মিত ৮৪ জন ও বাকীরা অনিয়মিত।