চকরিয়ায় শিক্ষার্থীকে ধর্ষন : ধর্ষক গ্রেপ্তার

rohingya-rape_58602_1506060539.jpg

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া : চকরিয়া পৌরসভার ফুলতলা গ্রামের একটি ভাড়া বাসায় তুলে দুইদিন ধরে মাদরাসা পড়ুয়া কিশোরী শিক্ষার্থীকে (১৪) জোরপুর্বক ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। বাসার অন্য ভাড়াটিয়া ও স্থানীয় লোকজনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে গতকাল শনিবার বিকালে চকরিয়া থানার এসআই সুকান্ত চৌধুরীসহ পুলিশের একটিদল অভিযান চালিয়ে ওই বাসা থেকে ভিকটিম শিক্ষার্থীকে উদ্ধার ও অভিযুক্ত ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে। চকরিয়া থানার এসআই সুকান্ত চৌধুরী বলেন, ভিকটিম মাদরসায় পড়ুয়া চর্তুথ শ্রেণীর শিক্ষার্থীর বাড়ি মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুর ইউনিয়নে। কিছুদিন আগে মোবাইল ফোনের ক্রসকানেশনের মাধ্যমে ওই শিক্ষার্থীর প্রেমের সর্ম্পক গড়ে উঠে পেকুয়া উপজেলার টৈইটং ইউনিয়নের বাসিন্দা এক সন্তানের জনক নেজাম উদ্দিনের সাথে।
তিনি বলেন,প্রেমের সম্পর্কের সুবাদে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গত দুইদিন আগে (বৃহস্পতিবার) সকালে ওই ছাত্রীকে বাড়ি থেকে এনে প্রেমিক নেজাম উদ্দিন চকরিয়া পৌরসভার ৩নম্বর ওয়ার্ডের ফুলতলা এলাকার একটি ভাড়া বাসায় তুলে। গতকাল স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে ঘটনাটি জানার পর থানার ওসির নির্দেশে অভিযান চালিয়ে ওই বাসা থেকে ভিকটিমকে উদ্ধার এবং অভিযুক্ত প্রেমিককে আটক করে থানায় নেয়া হয়েছে।
চকরিয়া থানার ওসি মো.বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, দুইদিন ধরে চকরিয়া পৌরসভার ফুলতলা এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় তুলে কিশোরীর সাথে ঘর-সংসার ঘটনাটি স্থানীয় জনগনের মাঝে সন্দেহের সৃষ্টি হয়। বিষয়টি স্থানীয়রা থানা পুলিশকে জানালে সত্যতা যাছাইয়ের মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে ওই বাসা থেকে ভিকটিমকে উদ্ধার ও অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওসি বলেন, মেয়েটির পরিবারকে থানায় আসতে বলা হয়েছে। তাদের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং মেডিক্যাল চেকআপের জন্য ওই কিশোরীকে কক্সবাজার ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস (ওসিসি) সেন্টারে পাঠানো হবে। #