চকরিয়ায় বসত-ভিটার বিরোধের জেরে সংঘর্ষে শিশু কন্যার মৃত্যু : আহত-১০

Chakaria-Picture-17-01-18.jpg

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া : চকরিয়া পৌরসভার পালাকাটা খন্দকার পাড়া গ্রামে বাড়িভিটার বিরোধের জেরে দুইপক্ষের মধ্যে ফের সংঘর্ষে ১০জন আহত হয়েছে। এ সময় দেড়মাস বয়সের নওরিন আক্তার নামের এক কোলের শিশুকে আঁছাড় মেরে হত্যার করার অভিযোগ তুলেছেন শিশুটির পরিবার। গতকাল বুধবার দুপুর আনুমানিক সাড়ে ১২টার দিকে বিরোধীয় ওই বসতভিটায় ঘটেছে এ হামলার ঘটনা। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সোমবার (১৫ জানুয়ারী) বাড়িভিটির বিরোধ নিয়ে চকরিয়া পৌরসভার পালাকাটা খন্দকার পাড়া গ্রামের সাহাব উদ্দিন ও আবু তাহের গংয়ের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এসময় সাহাব উদ্দিন পক্ষের লোকজন হামলা চালিয়ে আবু তাহের গংঢের বসতঘর ভেঙ্গে মাটিতে লুটিয়ে দেয়। এ ঘটনায় অভিযোগের প্রেক্ষিতে থানা পুলিশ সাহাব উদ্দিনকে গ্রেফতার করে।
সাহাব উদ্দিন পক্ষের লোকজনের দাবি, গ্রেফতারের পর সাহাব উদ্দিনের অনুপস্থিতিতে গতকাল বুধবার দুপুরে আবু তাহের গংয়ের লোকজন সশস্ত্রভাবে সাহাব উদ্দিনের পরিবারের সদস্যদের উপর হামলা করে। এ সময় আবু তাহের গংয়ের লোকজন সাহাব উদ্দিন গংয়ের কবির আহমদের দেড় মাস বয়সের শিশু কন্যা নওরিনকে মায়ের কোল থেকে কেড়ে নিয়ে আছাড় মারে। এতে ওই শিশুটি গুরুতর আহত হয়। পরে শিশুটিকে উদ্ধার করে দ্রæত চকরিয়া উপজেলা হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।
শিশুটির মা ছাইরা খাতুন অভিযোগ করে জানান, তার শিশু কন্যা নওরিনকে ঘটনার সময় প্রতিপক্ষ আবু তাহেরের লোক হাবিবুর রহমান, শাকের, ফরিদ ও রফিক কোল থেকে কেড়ে নিয়ে আছাড় মেরেছে। এ ঘটনায় সাহাব উদ্দিন পক্ষের পরিবার সদস্য মেরী আক্তার (১৮), রোসনারা (৪৫), মুনতাহার (৪৫)সহ অন্তত ১০জন আহত হয়েছে।
চকরিয়া থানার ওসি মো.বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান,ঘটনার বিস্তারিত জানতে আমি ঘটনাস্থলে রয়েছি। তবে এ ঘটনায় এখনো কোন ধরণের অভিযোগ পাওয়া যায়নি। ##