ট্রাম্পের ‘ধীশক্তি ঠিক আছে !

trump.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : ধীশক্তি পরীক্ষায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে কোনো ধরণের অস্বাভাবিকতা পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন হোয়াইট হাউসের চিকিৎসক রনি জ্যাকসন।ট্রাম্পের স্বাস্থ্যও ‘বেশ চমৎকার’ বলে মন্তব্য করেছেন তিনি, জানিয়েছে বিবিসি। “তার বোধশক্তি কিংবা স্নায়বিক কার্যক্রম নিয়ে আমার কোনো উদ্বেগ নেই,” মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসের এক ব্রিফিংয়ে এমনটাই বলেন প্রেসিডেন্টের চিকিৎসক। প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেওয়ার পর গত সপ্তাহে প্রথমবারের মতো মেডিকেল চেক-আপ করান ট্রাম্প; তিন ঘণ্টা ধরে তার এ চেক-আপ চলে বলে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।সাংবাদিক মাইকেল ওল্ফের লেখা ‘ফায়ার অ্যান্ড ফিউরি: ইনসাইড দ্য ট্রাম্প হোয়াইট হাউস’ বইতে ট্রাম্পের মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে সন্দেহের কথা জানানোর মধ্যেই তার ধীশক্তির এ পরীক্ষা হলো।
মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসের ব্রিফিংয়ে ডাঃ জ্যাকসন সাংবাদিকদের বলেন, সামগ্রিকভাবে প্রেসিডেন্টের স্বাস্থ্য ‘চমৎকার’।
“সব তথ্যই প্রেসিডেন্টের সুস্থতার এবং পুরো মেয়াদেই এরকম থাকার ইঙ্গিত দিচ্ছে। তামাক ও অ্যালকোহল থেকে দূরে থাকায় হৃদপিণ্ড এবং সামগ্রিক স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে যে সুবিধা তিনি জীবনভর পেয়ে আসছেন তা অব্যাহত থাকবে,” বলেন তিনি।
তবে জ্যাকসন জানিয়েছেন, কম চর্বিযুক্ত খাবার ও আরো ব্যায়াম করলে ৭১ বছর বয়সী ট্রাম্প স্বাস্থ্যগতভাবে আরো সুবিধা পেতে পারেন।
শুক্রবার মেরিল্যান্ডের বিথেসডায় ওয়াল্টার রিড মেডিকেল সেন্টারে সামরিক বাহিনীর চিকিৎসকরা ট্রাম্পের নিউরোসাইকোলজিক্যাল পরীক্ষা (‘মন্ট্রিল কগনিটিভ অ্যাসেসমেন্ট’) করেন।
যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অব ভেটেরান্স অ্যাফেয়ার্স এ পরীক্ষার মাধ্যমে কারো ধীশক্তিজনিত ত্রুটি আছে কিনা তা পরীক্ষা করে। এর মাধ্যমে সাধারণত ব্যক্তিবিশেষের মনোযোগ, একাগ্রতা, স্মৃতি, ভাষা, ধারণাগত চিন্তা, গণনা ও মনোভাবসহ বিভিন্ন মানসিক বিষয়ের পরীক্ষা নেওয়া হয়।
ট্রাম্পকে যারা পরীক্ষা করেছেন সেই বিশেষজ্ঞদের মধ্যে ড. জ্যাকসনও ছিলেন।
মার্কিন নৌবাহিনীর রিয়ার অ্যাডমিরাল জ্যাকসন এর আগে ট্রাম্পের পূর্বসুরী সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার চিকিৎসক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।