তার মতো এত নিরহংকারী শিল্পী আর হয় না

sammi-akhtar.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী শাম্মী আক্তার আর আমাদের মাঝে নেই। তার মৃত্যুতে সংগীতাঙ্গনে বইছে শোকের হাওয়া। সহশিল্পী সুবীর নন্দী জানালেন তার শোক প্রতিক্রিয়া। ‘বৈদেশ গিয়া বন্ধু’, ‘ওই রাত ডাকে, ওই চাঁদ ডাকে’সহ অসংখ্য জনপ্রিয় গান একসঙ্গে গেয়েছেন শাম্মী আক্তার ও সুবীর নন্দী। প্রিয় সহশিল্পীর প্রয়াণে ব্যথাতুর কণ্ঠে সুবীর নন্দী বলেন, “মুক্তিযুদ্ধের পর আমাদের একসঙ্গে ঢাকার জীবন শুরু হয়েছিল । তার স্বামী একরামুলের সঙ্গে সেই ৬২ সাল থেকে আমার বন্ধুত্ব। পারিবারিকভাবেই আমাদের বন্ধন ছিল। একসঙ্গে অসংখ্য জনপ্রিয় গান করেছি।
এত বয়স হয়েছে এত অসুস্থতা কিন্তু পুরো সংগীতজীবনে একই মাপে গান গেয়ে গেছেন তিনি। কণ্ঠ একটুও নড়চড় হয়নি। প্রতিটি সংগীত পরিচালক তার সঙ্গে কাজ করে খুশি হতো।”শুধু সংগীতশিল্পী হিসেবেই নয়, ব্যক্তি মানুষ হিসেবেও শাম্মী আক্তার প্রসঙ্গে নিজের মূল্যায়ন জানালেন সুবীর নন্দী।
তিনি বলেন, “তার মতো এত নিরহংকারী শিল্পী আর হয় না। ব্যক্তি মানুষ হিসেবে অসম্ভব ভালো ছিলেন তিনি। তার সঙ্গে এক ঘন্টা যে কথা বলতো তাকে আর ভুলতো না। এত আন্তরিক একজন মানুষ ছিলেন। সামাজিকভাবে তার মতো এত ভালো মানুষ খুব কমই আছে।”
সহশিল্পী হিসেবে দুজনের মধ্যে ছিল মজার সম্পর্ক। একে অপরকে ডাকতেন নানী-নাতিন সম্বোধনে। শাম্মী আক্তারের প্রয়াণে সহশিল্পী-বন্ধু হারানোর শোকে কাতর সুবীর নন্দী বললেন, “কিছু ভালো লাগছে না। সবার কাছে প্রার্থনা চাইবো তার আত্মা যেন শান্তি পায়।”