শাহপরীর দ্বীপ বেড়িবাঁধ নির্মাণ কাজ দেখতে গেলেন শিল্পপতি ইয়াহিয়া

IMG20180115163254.jpg

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি ::
টেকনাফ শাহপরীর দ্বীপের বহু প্রতীক্ষার বেড়িবাঁধ নির্মাণ কাজ ঘুরে দেখলেন দেশের খ্যাতনামা শিল্প প্রতিষ্ঠান ইয়াহিয়া গ্রুপের চেয়ারম্যান ও আজকের দেশবিদেশ পত্রিকার সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি বিশিষ্ট শিল্পপতি ও শাহপরীর দ্বীপের কৃতি সন্তান, দানবীর ও শিক্ষানুরাগী আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইয়াহিয়া। তিনি ১৫ জানুয়ারী সোমবার বিকাল ৪ টায় শাহপরীর দ্বীপ পশ্চিমের বেড়িবাঁধ নির্মাণ কাজ সরেজমিনে দেখতে যান। এসময় টেকনাফ উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি মাস্টার জাহেদ হোসেন সহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ, গণ্যমান্য ব্যক্তি ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।
বেড়িবাঁধের কাজ পরিদর্শন কালে শিল্পপতি মোহাম্মদ ইয়াহিয়া বলেন, শাহপরীর দ্বীপের মাঠি ও মানুষের সাথে আমার আত্মার সম্পর্ক। তাই শত ব্যস্থতার মাঝেও এই দ্বীপের মানুষের ভালোবাসার টানে মাঠির কাছে, মানুষের কাছেই ফিরে আসি। চেষ্টা করি জন্মভূমির মানুষের পাশে থেকে সুখ দুঃখ ভাগাভাগি করার।
তিনি বলেন, আজকে আমি বেড়িবাঁধ নির্মাণ কাজ দেখতে এসে আবেগাপ্লুত, আনন্দিত। কারণ যেখানেই অবস্থান করেছি সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে, বিভিন্ন দফতরে দ্বীপবাসীর দুর্দশার চিত্র তুলে ধরার চেষ্টা করেছি, বেড়িবাঁধের দাবিতে সরকারের উচ্চ মহলে অনেক আকুতি মিনতি করেছি। শুধু তাই নয়, প্রকল্প পাস হওয়ার পরেও সেনা অথবা নৌবাহিনীর তত্ত্বাবধানে কাজ বাস্তবায়নের জন্যও আমার চেষ্টা অব্যাহত ছিল। আল্লাহ সবখানে সহায় হয়েছেন, দ্বীপের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়েছে, একটু বিলম্বে হলেও বেড়িবাঁধের কাজ শুরু হয়েছে। তাই আমি শাহপরীর দ্বীপবাসীর স্বপ্ন ও প্রাণের দাবি বেড়িবাঁধ প্রকল্প বাস্তবায়নের প্রধান রূপকার বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, মাননীয় সেতুমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ও পানিসম্পদ মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।
বেড়িবাঁধ পরিদর্শনকালে শিল্পপতি মোহাম্মদ ইয়াহিয়া আরো বলেন, বেড়িবাঁধ ভাঙ্গনের কারণে শাহপরীর দ্বীপের ৪০ হাজার মানুষকে দীর্ঘ সাড়ে পাঁচ বছর সীমাহীন দূর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। ভোগান্তির এই সাড়ে পাঁচ বছরে দ্বীপের মানুষ অসহায়ত্বকে বরণ করে মানবেতর জীবন যাপন করেছে, সীমাহীন কষ্ট সহ্য করেছে। দ্বীপের মানুষের রাজনৈতিক দূরাবস্থা এবং নেতা ও নেতৃত্ব শূণ্যতার কারণে ভোগান্তির এই দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হয়েছে। দ্বীপের মানুষের প্রতি স্থানীয় প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতৃত্বের অবজ্ঞা ও অবহেলা এ ভোগান্তির পেছনে অন্যতম দায়ী। তাই আগামী দিনে নেতৃত্ব নির্বাচনে দ্বীপবাসীকে অতীত থেকে শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে।
এসময় তিনি স্থানীয় বাসিন্দাদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে বলেন, আমার মরহুম পিতা হাজী নবী হোসাইন এ দ্বীপের মানুষের জন্য পুরো জীবনটাই দ্বীপে কাটিয়ে দিয়েছেন, যেকোন সময় দ্বীপের মানুষের পাশে ছিলেন। আমার পরিবারের অপরাপর সদস্যরাও বিপদে আপদে শাহপরীর দ্বীপের মানুষের পাশে ছিলেন। ছোট বেলা থেকে এই দ্বীপের মানুষের প্রতি আমার অগাধ ভালোবাসা এবং আস্থা। এই এলাকার মানুষের চরম দুর্দিনে নিজের সাধ্যের সবটুকু দিয়ে পাশে থেকেছি, কথা দিচ্ছি আমৃত্যু আপনাদের পাশে থাকবো।
বেড়িবাঁধ নির্মাণ কাজ পরিদর্শনকালে শিল্পপতি মোহাম্মদ ইয়াহিয়া স্থানীয় ব্যক্তিবর্গ, বেড়িবাঁধ প্রকল্প বাস্তবায়নকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বশীল কর্তাদের সাথে বিভিন্ন বিষয়ে কৌশল বিনিময় করেন, এবং এলাকাবাসীকে অনুরোধ করেন কাজে নিয়োজিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের প্রয়োজনে আন্তরিক ভাবে সহযোগিতা দেয়ার।