চকরিয়ায় আওয়ামী লীগের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের সভায় জাফর – বঙ্গবন্ধু বাংলার স্থপতি ও শেখ হাসিনা স্বনির্ভর বাংলার কারিগর

.jpg

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া : চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম বলেছেন, গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বাঙ্গালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম হয়েছিলো বলেই আজ বাঙ্গালি জাতি একটি স্বাধীন দেশ পেয়েছে। বঙ্গবন্ধু’র জন্ম না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন দেশের পতাকা পেত কিনা যতেষ্ট সন্দেহ ছিল। বাঙ্গালি জাতিকে নরঘাতক পাকিস্তানীদের পরাধীনতার শৃঙ্খল থেকে মুক্ত করতে নিজের জীবন বাজি রেখে তিনি যেই আত্মত্যাগ করেছেন, তা বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষ কোনদিন শোধ করতে পারবেনা।তিনি বলেন, নানাভাবে হুমকি ধমকি ও নির্যাতনের মাধ্যমে পাকিস্তানী শাসকরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে কারাগারে আবদ্ধ রাখলেও ১৯৭২ সালের এই দিনে বাঙ্গালি জাতির প্রবল আন্দোলনের মুখে তাকে কারামুক্ত করে দিতে বাধ্য হয়। পরে পাকিস্তানীদের ইন্ধনে এ দেশের গুপ্ত ঘাতকের দল ৭৫ সালের ১৫ আগষ্টের রাতে পেছনের দরজায় রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসতে বাঙ্গালীর স্বপ্নদ্রষ্ট্রা এ মহানায়ককে স্ব-পরিবারে হত্যা করে। ওইদিন দেশের বাইরে থাকায় ভাগ্যক্রমে আল্লাহর মেহেরবানীতে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য দুই কন্যা দেশরত্ম শেখ হাসিনা ও শেখ রেহেনা প্রাণে বেঁচে যান। তিনি বলেন, দেশে আসার পর প্রথমে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ও পরে জনগনের ভোটে রাষ্ট্র ক্ষমতায় এসে দেশ পরিচালনার দায়িত্ব নেন বঙ্গকন্যা দেশরত্ম শেখ হাসিনা। এখনো স্বাধীন বাংলাদেশে পাকিস্তানী দোসররা জাতির জনকের দুই কন্যাকে হত্যা করতে ও আওয়ামীলীগ সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। তাই আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও সহযোগি সংগঠনের সকলস্থরের নেতাকর্মীদেরকে এসব ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।
উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আলম, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু স্বাধীন বাংলার স্থপতি, আর তার সুযোগ্য উত্তরসুরী দেশরত্ম শেখ হাসিনা স্বনির্ভর বাংলার একজন সুদক্ষ কারিগর। বাবার আর্দশে তিনি উন্নয়নের মাধ্যমে বাংলাদেশকে একটি উন্নত ও মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে কাজ করছে। বর্তমানে দেশরত্ম শেখ হাসিনার সুদক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ^দরবারে মর্যাদা আসনে পৌঁছে গেছে। সরকারের সফলতা জনগনের মাঝে তুলে ধরার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, সারাদেশের সাথে সরকারের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় চকরিয়া উপজেলাবাসি সামিল হয়েছে। সেই লক্ষ্যেই পরিকল্পিতভাবে উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। তিনি গতকাল ১০ জানুয়ারী বিকালে চকরিয়া উপজেলা ও চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে আয়োজিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম লিটুর অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফাসিয়াখালী ইউপি চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য আমিনুর রশিদ দুলাল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ছরওয়ার আলম, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক ও চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোক্তার আহমদ চৌধুরী, বাবু এমআর চৌধুরী, ছৈয়দ আলম কমিশনার, মাতামুহুরী উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মকছুদুল হক ছুট্টো, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাকারা ইউপি চেয়ারম্যান শওকত ওসমান, সাংগঠনিক সম্পাদক মিজবাউল হক, উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য রুস্তম শাহরিয়ার, বিএমচর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ বদিউল আলম, ঢেমুশিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান রোস্তম আলী, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ কাউছার উদ্দিন কছির।
চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক আরিফ মাঈন উদ্দিন রাসেলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন পৌরসভা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অধ্যাপক মুসলেহ উদ্দিন মানিক, আবু তালেব, আমান উল্লাহ আমান, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক রতন কমুার সুশীল, ফেরদৌস ওয়াহিদ, সেলিম উদ্দিন লিটন, কাউন্সিলর রেজাউল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মুজিবুর রহমান লিটন, নজরুল ইসলাম রাসেল, ফরিদুল ইসলাম, পৌরসভার প্যানেল মেয়র বশিরুল আইয়ুব, আওয়ামীলীগ নেতা সোলতান আহমদ, মিফতাব উদ্দিন চৌধুরী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক ইমাম হোসেন, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক শাহ আলম, ধর্ম সম্পাদক হুমায়ুন কবির, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মো.মোজাম্মেল হক, শিক্ষা ও মানব সম্পাদক জমির উদ্দিন বাবলু, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা.আসাদুল হক, উপ-দপ্তর সম্পাদক বশিরুল আলম, উপ-প্রচার সম্পাদক আবুল হাশেম, পৌর আওয়ামীলীগের সদস্য কবির আহমদ, আবু তাহের মেম্বার, সাহাব উদ্দিন টিংকু, কবিরাজ ফজল করিম চৌধুরী, ডা.রুস্তম আলী, নুরুল আমিন টিপু, গিয়াস উদ্দিন, রুহুল আমিন। পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মাষ্টার কবির আহমদ, সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন মেম্বার, ২নং ওয়ার্ড সভাপতি নাজেম উদ্দিন ভুট্টো, ৩নং ওয়ার্ড সম্পাদক সফুর আলম, ৪নং ওয়ার্ড সভাপতি ডা.রতন কুমার চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইসহাক, ৫নং ওয়ার্ড সভাপতি সেকান্দর বাদশা নাগু সওদাগর, সাধারণ সম্পাদক জমির উদ্দিন মেম্বার, ৬নং ওয়ার্ড সভাপতি মনিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, ৭নং ওয়ার্ড সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক কাউন্সিলর জামাল উদ্দিন, ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হোসেন আমু, ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি হুমায়ুন কবির কমিশনার ও সাধারণ সম্পাদক ওমর হামজা সহ উপজেলা, পৌরসভা আওয়ামীলীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।#