উখিয়ার দুর্নীতিবাজ ওসি (তদন্ত) কে প্রত্যাহারের দাবী জানিয়েছে প্রেসক্লাব

UU.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : উখিয়া থানায় যোগদানের অল্প দিনের মাথায় ব্যাপক সমালোচিত উখিয়া থানার ওসি (তদন্ত) মাসুদ আলমকে যতদ্রæত সম্ভব প্রত্যাহারের দাবী জানিয়ে বক্তারা বলেন, অনৈতিক উপায়ে টাকা আদায়, নিরহ লোকজনদের গ্রেফতারের নামে হয়রানী, সর্বশেষ স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে দুরব্যবহার সহ তার এক গুয়েমী আচরণে অতিষ্ট হয়ে উঠেছে। এ ঘটনায় উখিয়ার সাংবাদিক সমাজ বিতর্কিত ওসি (তদন্ত)কে প্রত্যাহারের জন্য পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।
বুধবার সকাল ১০টায় উখিয়া প্রেসক্লাব মিলনায়তনে অনুষ্টিত সাধারণ সভায় বক্তারা আরো বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে আর্ন্তজাতিক মহলে উখিয়া উপজেলা এখন একটি গুরুত্বপূর্ণ জনপথের পরিনত হয়েছে। রোহিঙ্গাদের সংকট, সমস্যা,দুর্ভোগ, স্থানীয় এনজিওদের যথাযথ দায়িত্বপালন ও তাদের নিরাপত্তা বিষয়ে জানার চেষ্টা করলে ওসি (তদন্ত) সাংবাদিকদের তথ্য সরবরাহ করতে প্রায় সময় অনিহা প্রকাশ করেন। এমনকি সে ক্ষেত্র বিশেষে সাংবাদিকদের সাথে অসাধাচরণের অভিযোগ উঠেছে। উখিয়ার হলদিয়াপালংয়ের চাঞ্চল্যকর বসতবাড়ী ডাকাতি ও লুটপাটের ঘটনায় জড়িত ডাকাত মনজুর আলমকে গ্রেফতার করে উখিয়া থানা পুলিশ। খবর পেয়ে উখিয়ার ৪জন সিনিয়র সাংবাদিক যথাক্রমে রফিক উদ্দিন বাবুল (ইত্তেফাক), মুহাম্মদ হানিফ আজাদ(সমকাল), হুমায়ুন কবির জুশান(নয়াদিগন্ত), শফিক আজাদ(যুগান্তর) তথ্য সংগ্রহের জন্য উখিয়ার থানা অফিসার ইনচার্জ কক্ষে গেলে তাকে পাওয়া যায়নি। পরে ওসি(তদন্ত)কে থানা হাজতের সামনে পেয়ে ডাকাতের একটি ছবি ধারণ করার অনুমতি চাইলে ওসি তদন্ত তেলে-বেগুণে জ¦লে উঠে সাংবাদিকদের দ্বি’তলা থেকে নিচ তলায় চলে যেতে বাধ্য করেন। এসময় সাংবাদিকরা তার উগ্রমুর্তি দেখে নিচে নেমে আসেন। তাৎক্ষণিক আবার পুলিশ পাঠিয়ে ওসি তদন্তের কক্ষে ঢুকিয়ে রিমোর্ট কন্ট্রোলের মাধ্যমে তার দরজা বন্ধ করে সাংবাদিকদের যথাইচ্ছা ব্যবহার করেন। সাংবাদিকেরা চলে আসতে চাইলেও দরজা বন্ধ রাখার কারণে আধা ঘন্টাব্যাপী তার কক্ষে সাংবাদিকদের দাড়িয়ে রাখেন। এসময় সাংবাদিক হুমায়ুন কবির জুশান ধৃত ডাকাতের ব্যাপারে উপজেলা আইনশৃংখলা কমিটির সভায় সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদির ডাকাত, সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের বিষয়ে পুলিশকে তৎপর থাকার নির্দেশ দেওয়ার কথাটি বললে ওসি (তদন্ত) আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে বলেন, এমপি বললে আমার কি হয়েছে।
সভায় সাধারণ সদস্যদের সর্বসম্মতিক্রমে উখিয়া থানার কোন খবরা-খবর সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ না করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। আলোচনা সভার শেষ পর্যায়ে আগামী ২০১৮ সালের মার্চ মাসে প্রেসক্লাবের নির্বাচন অনুষ্টানের জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন উখিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক রফিকুল ইসলাম, রফিক উদ্দিন বাবুল, এডভোকেট আব্দুর রহিম, নুরুল আমিন ছিদ্দিক, ফারুক আহমদ, মুহাম্মদ হানিফ আজাদ, গফুর মিয়া চৌধুরী, দীপন বিশ^াস, সরওয়ার আলম শাহীন, রতন কান্তি দে, সাইফুর রহিম শাহীন, আমানুল হক বাবুল, হুমায়ুন কবির জুশান, আহসান সুমন, কমরুদ্দিন মুকুল, এইচএম সেলিম উল্লাহ, মোহাম্মদ নুরুল হক, নুরুল হক খাঁন, শফিক আজাদ, নুর মোহাম্মদ সিকদার, জসিম উদ্দিন চৌধুরী, আমিনুল হক আমিন প্রমূখ।
সংবাদ প্রেরক
আহসান সুমন
ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক
উখিয়া প্রেসক্লাব
উখিয়া,কক্সবাজার
০১৮১৮১৩১৩৩৭